সংবাদ শিরোনাম

 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সময়টা যে মোটেই ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। বৈশ্বিক এ ক্রিকেট আসরে একমাত্র সুখ স্মৃতি বলতে আন-অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষে ৬০ রানের বড় ব্যবধানের জয়। এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল।

এরপরই টাইগারদের দুঃস্বপ্নের সময়ের শুরু। অফিসিয়াল ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে পায়নি জয়ের দেখা। শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের কাছে টানা দুই হার।

তবুও প্রত্যাশা ছিল। বিশ্বকাপ মিশনের শুরুটা জয় দিয়েই রাঙাবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। হয়েছে ঠিক তার উল্টো। স্কটল্যান্ডের কাছে হেরেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা মাত্র ৬ রানে।

আজ ফের মাঠে নামছে দেশের ছেলেরা। প্রতিপক্ষ ওমান। ম্যাচ শুরু রাত ৮টায়। জয়ে ফেরার প্রত্যয় নিয়েই মাঠে নামবে সাকিব-মুশফিকরা। সুপার টুয়েলভে খেলার প্রত্যাশা টিকিয়ে রাখতে হলে আজ জিতলেই হবে। কোনো কারণে পা হড়কালে ছিটকে যেতে হবে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্ব থেকেই।

শুধু আজ জিতলেই হবে না। জিততে হবে নিজেদের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচও। ওমানের পর হারাতে হবে নিজেদের শেষ ম্যাচের প্রতিপক্ষ পাপুয়া নিউগিনিকেও।

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে জিতলেই হবে না। তাকিয়ে থাকতে হবে স্কটল্যান্ডের দিকে। স্কটিশরা যদি ওমান ও পাপুয়া নিউগিনিকে হারায়। আর যদি শেষ দুই ম্যাচ জেতে তাহলে অনায়াসে মূল পর্বের টিকিট পাবে বাংলাদেশ।

আর স্কটল্যান্ড যদি এক ম্যাচ হেরে যায়। সেক্ষেত্রে টাইগাররা দুই ম্যাচ জিতলেও পড়ে যাবে রানরেটের জটিল সমীকরণে।

এখন একটি করে ম্যাচ জিতে গ্রুপ ‘বি’তে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে স্কটল্যান্ড ও ওমান। +৩.১৩৫ ও +০.৩০০ নেট রান রেট নিয়ে রয়েছে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে। বিপরীতে বাংলাদেশ ও পাপুয়া নিউগিনির নেট রান রেট -০.৩০০ ও -৩.১৩৫।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম