সংবাদ শিরোনাম

 

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি এম. আবদুল্লাহ বলেছেন, বাংলাদেশের গণমাধ্যম বর্তমানে দুঃসময় অতিক্রম করছে। স্বাধীনভাবে কেউ কাজ করতে পারছে না। সংবাদপত্রগুলো অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করতে পারছে না। বস্তুনিষ্ঠ ও সঠিক সংবাদ পরিবেশনের কারণে বিএফইউজের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজীসহ অনেক সাংবাদিককে কারাগারে থাকতে হচ্ছে।

এ সময় তিনি অনতিবিলম্বে রুহুল আমিন গাজীর মুক্তি দাবি করে বলেন, সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজীকে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় আটকে রাখা হয়েছে। অথচ স্বাধীনতার ৪০ বছর পরও রাষ্ট্রদ্রোহ আইনই থাকার সুযোগ নেই। ইতিমধ্যে ভারতের সর্বোচ্চ আদালতও রাষ্ট্রদ্রোহ আইন থাকার বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টায় সাংবাদিক ইউনিয়ন ময়মনসিংহের (জেইউএম) বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় জেইউএম সভাপতি এম. আইয়ুব আলীর সভাপতিত্বে স্থানীয় একটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন বিএফইউজের মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন।

অনুষ্ঠানে জেইউএম’র সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলামর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে সহ-সভাপতি মোদাব্বের হোসেন, রাশিদুল ইসলাম, ওবায়দুর রহমান শাহীন, সহকারী মহাসচিব নাসির আল মামুন, শহীদুল্লাহ্ মিয়াজি, শফিউল আলম দোলন, সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশীদ আলম, সাংবাদিক ইউনিয়ন ময়মনসিংহের সহ-সভাপতি সুপ্রিয় ধর বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: আমান উল্লাহ আকন্দ জাহাঙ্গীর সহ বিএফইউজে ও অঙ্গ ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।

এর আগে অনুষ্ঠানে রিপোর্ট উপস্থাপন করেন জেইউএম’র সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ নজীব আশরাফ। পরে তা সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন লাভ করে।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম