সংবাদ শিরোনাম

 

ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে দুটি ক্যাচ মিস করেছেন লিটন দাস। আর তাতেই ম্যাচ চলে যায় শ্রীলঙ্কার পক্ষে। যদিও এই দুই ক্যাচ মিসের জন্য লিটনকে দায় দিচ্ছেন না মুশফিকুর রহিম।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) শারজায় শুরুতে দারুণ ফিল্ডিং করেছিলেন লিটন। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এসে দুই ক্যাচ মিস করে খলনায়ক বনে যান তিনি।

ইনিংসের ১৩তম ওভারে আফিফ হোসেনের হাতে বল তুলে দেন মাহমুদউল্লাহ। নিজের তৃতীয় বলে স্কয়ার লেগে উড়িয়ে মারতে গিয়ে লিটন হাতে ক্যাচ তুলে দেন। কিন্তু সেটি ধরতে তো পারেননি, উল্টো বাউন্ডারি দিয়ে দেন লিটন। ১৪ রানে জীবন পাওয়া রাজাপাকসে থামেন ৩১ বলে ৫৩ রান করে। শুধু রাজাপাকসের নন, ক্যাচ মিস করেছেন চারিথ আসালাঙ্কারও। মোস্তাফিজের বলে ৬৩ রানে আসালাঙ্কার ডিপ কভারে ক্যাচ ছাড়েন লিটন। ক্যাচটি ধরতে পারলে হয়তো ম্যাচটি নিজেদের করে নিতো পারতো বাংলাদেশ। ৬৩ রানে জীবন পাওয়া আসালাঙ্কাকে শেষ পর্যন্ত ৮০ রানে অপরাজিত থাকেন।

মুশফিকুর রহিম দুটো ক্যাচকে টার্নিং পয়েন্ট বললেও হারের দায় কারও ওপর দিচ্ছেন না, ‘আমি মনে করি দায় দেওয়ার কিছু নাই। একটা ম্যাচ খেললে ছোটখাটো ভুল থাকে, অনেক কিছু আবার ইতিবাচক থাকে। আমার কাছে মনে হয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল দুটি ক্যাচ। লিটন খুবই ভালো ফিল্ডার, সাধারণত আমার কাছে এলে ভিন্ন বিষয় ছিল, আমি হয়তো ওরকম মানের ফিল্ডার না। কিন্তু লিটন দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার। ওই সময় চাপের মুহূর্ত ছিল, গুরুত্বপূর্ণ সময় ছিল। দুটো বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ব্যাট করছিল। একটা জুটি হয়ে গিয়েছিল, আমাদের ব্রেক থ্রো দরকার ছিল।’

মুশফিক নির্দিষ্ট কাউকে দায় দিতে নারাজ। তার মতে, ছোটখাটো কিছু ভুলেই ম্যাচ হারতে হয়েছে, ‘ওরা পাওয়ার প্লের ছয় ওভার খুব ভালো ব্যবহার করেছে। সাকিবের ওই ওভারে মোমেন্টাম এসেছিল। সব মিলিয়ে বলবো দায় ঠিক না। আমরা ছোটখাটো কিছু ভুল করেছি। সেজন্য আমরা আসলে জিততে পারিনি।’


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম