সংবাদ শিরোনাম

 

আগাম জাতের রোপা আমন ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষকরাআগাম জাতের রোপা আমন ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষকরা

ময়মনসিংহে আগাম রোপা আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকায় আগাম জাতের রোপা আমন ধান কাটা শুরু করেছেন কৃষকরা। অনেকে বিক্রিও করেছেন। ভালো দামে বিক্রি করতে পেরে খুশি তারা।

সদর উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের চকনজু গ্রামের আক্কাস আলী ২০ শতক জমিতে চলতি রোপা আমন মৌসুমে আগাম জাতের ব্রি ধান-৭১ রোপণ করেন। আশপাশের জমিতে না পাকলেও আগাম জাতের হওয়ায় তার ধান পেকে যাওয়ায় কেটে ফেলেছেন। বিশ শতক জমিতে ধান পেয়েছেন ৮ মণ। বাজারে প্রতি মণ ধানের দাম বর্তমানে এক হাজার টাকা। এই হিসাবে ধান বিক্রি করে পাবেন আট হাজার টাকা।

আক্কাস আলী বলেন, রোপা আমন ধান আবাদ করতে গিয়ে জমি প্রস্তুত, বীজ ও চারা, সার ও শ্রমিক বাবদ খরচ হয়েছে তিন হাজার টাকা। এই হিসাবে পাঁচ হাজার টাকা লাভ হয়েছে। আরও ৫০ শতক জমিতে রোপা আমন ধান আবাদ করেছেন। কিন্তু সে ধান এখনও পাকেনি। আগাম জাতের ব্রি ধান-৭১ আবাদে মানুষ আগ্রহী হয়ে উঠেছে বলে জানান এই কৃষক।

একই এলাকার আব্দুল মালেক বলেন, বাম্পার ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় অধিকাংশ কৃষক আগাম জাতের আমন ধানের আবাদ করেছেন। আগাম জাতের ধান কেটে দাম ভালো পাওয়া যায়।

ময়মনসিংহ কৃষি খামার বাড়ির উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. মতিউজ্জামান জানান, চলতি মৌসুমে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৩১২ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান আবাদ হয়েছে। এবার ধানের ফলনও হয়েছে ভালো। আগাম জাতের রোপা আমনে পাক ধরায় কৃষকরা ধান কাটা শুরু করেছে।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম