সংবাদ শিরোনাম

 

বিজয়ের মাস উপলক্ষে গ্রাহকদের বেশি লাভ দিতে সারা দেশের ১২৬টির বেশি ব্র্যান্ডে এবং আড়াই হাজারেরও বেশি আউটলেটে কেনাকাটায় বিশেষ ক্যাশব্যাক বা ডিসকাউন্ট অফার চালু করেছে দেশের সেরা মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’। এই অফারের আওতায় ‘নগদ’-এর মাধ্যমে পেমেন্ট করলেই গ্রাহকেরা পাবেন ১৬% পর্যন্ত ডিসকাউন্ট বা ক্যাশব্যাক।

 

সম্প্রতি ‘উৎসবের খুশি নগদ-এ বেশি’ শিরোনামে একটি ক্যাম্পাইন চালু করেছে ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’। ১৩ ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া ক্যাম্পেইনটি চলবে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত। ‘নগদ’-এর এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে কেনাকাটায় যেসব সেক্টরে এই অফার মিলবে, তার মধ্যে সুপারস্টোর, রেস্টুরেন্ট, এয়ারলাইনস, ফ্যাশন প্রোডাক্ট, ই-কমার্স, ইলেকট্রনিক্স, ফুটওয়্যার, ফার্নিচার, হোটেল, ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইট টিভি, এক্সেসরিজ, ট্যুর অ্যান্ড ট্রাভেলস অন্যতম।

 

উল্লেখযোগ্য কিছু ব্রান্ডের ক্যাটাগরির মধ্যে সুপারস্টোরে রয়েছে স্বপ্ন, আগোরা, ডেইলি শপিং, মীনা বাজার; ইলেকট্রনিক্স ক্যাটাগরিতে রয়েছে স্যামসাং, ওয়ালটন, সনি র‍্যাংগস; রেস্টুরেন্টে রয়েছে সিক্রেট রেসিপি, টেস্টি ট্রিট, টারকা; ফুটওয়্যারে এপেক্স, বে এম্পোরিয়াম; ফ্যাশন প্রোডাক্ট-এ রয়েছে ক্যাটস আই, সারা , লা রিভ; এয়ারলাইনসে রয়েছে নোভোএয়ার, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স; ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার (আইএসপি) রয়েছে লিংক থ্রি, কার্নিভাল; স্যাটেলাইট টিভিতে রয়েছে আকাশ ডিটিএইচ; ই-কমার্স সেগমেন্টে রয়েছে পিকাবু, বাংলাকাট; রিসোর্ট ক্যাটাগরিতে রয়েছে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট ও ড্রিম স্কয়ার রিসোর্টসহ ১২৬টির বেশি ব্র্যান্ড।

 

গ্রাহকেরা ‘নগদ’ অ্যাপ এবং ইউএসএসডি-এর মাধ্যমে মার্চেন্ট কিউআর এবং অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করে পেমেন্ট করলেই এই ডিসকাউন্ট বা তাৎক্ষণিক ক্যাশব্যাক উপভোগ করতে পারবেন। এই অফারটি উপভোগ করতে হলে গ্রাহকের ‘নগদ’ অ্যাকাউন্টটি অবশ্যই সচল থাকতে হবে।

 

 

বিজয়ের মাস উপলক্ষে ‘নগদ’-এর এই ক্যাম্পেইনের বিষয়ে ‘নগদ’-এর প্রধান বিপণন কর্মকর্তা শেখ আমিনুর রহমান বলেন, ‘বিজয়ের মাসে গ্রাহকদের পাশে থেকে একটু বাড়তি সুবিধা তাদের উপহার দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। গ্রাহকেরা পছন্দ এবং প্রাধান্য আমাদের কাছে সবার আগে।’

 

 

‘উৎসবের খুশি নগদ-এ বেশি’ ক্যাম্পেইনটি নিয়ে গ্রাহকেরা বিস্তারিত জানতে চাইলে ভিজিট করতে পারেন www.nagad.com.bd অথবা কল করতে পারেন ১৬১৬৭ অথবা ০৯৬০৯৬ ১৬১৬৭ নম্বরে।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম