সংবাদ শিরোনাম

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুপল্লীতে হামলার ঘটনায় আটক হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখিকে গৌরমন্দির ভাঙচুর মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

এ মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছেন। বিকেলে সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরাফ উদ্দিন রিমান্ড আবেদনের বিষয়ে আদেশ দেবেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকার গুলশান জোনের ভাটারা থানা এলাকা থেকে আঁখিকে আটক করা হয়। ভাটারা থানা পুলিশের সহযোগিতায় আঁখিকে আটক করা হয়। আটকের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

গত বছর ৩০ অক্টোবর গৌরমন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় ওই মন্দির পরিচালানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল চৌধুরীর দায়ের করা মামলায় কারো নাম উল্লেখ করা না হলেও অজ্ঞাত সাড়ে ১২শ মানুষকে আসামি করা হয়।

এ মামলায় গ্রেফতার ট্রাকচালক নুরুল ইসলামসহ কয়েকজন আদালতে ১৬৪ ধারায় দেওয়া তাদের জবানবন্দিতে জানায়, হরিপুর ইউনিয়ন থেকে কয়েকটি ট্রাকে করে অনেক মানুষকে নাসিরনগর উপজেলা সদরে পাঠানো হয়। এর মধ্যে আঁখি কয়েকটি ট্রাকের ব্যবস্থা ও ভাড়ার টাকা যোগান দিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর ফেসবুকে পবিত্র কাবা শরীফ নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র পোস্ট দেওয়ার অভিযোগ উঠে নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের হরিণবেড় গ্রামের জগন্নাথ দাসের ছেলে রসরাজের(৩০) বিরুদ্ধে। তাকে গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে উত্তাল হয়ে ওঠে নাসিরনগর উপজেলা। ৩০ অক্টোবর মাইকিং করে সমাবেশ ডাকে দুটি ইসলামী সংগঠন। সমাবেশ শেষ হওয়ার পরপরই দুষ্কৃতিকারীরা নাসিরনগর উপজেলা সদরে হামলা চালিয়ে অন্তত ১৫টি মন্দির ও শতাধিক ঘর-বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এরপর ৪ নভেম্বর ভোরে ও ১৩ নভেম্বর ভোরে দুষ্কৃতিকারীরা আবারও উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্তত ৬টি ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে। এসব ঘটনায় নাসিরনগর থানায় পৃথক ৮টি মামলা দায়ের করা হয়। এ সব মামলায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাসহ ১০৫ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে রসরাজের বিরুদ্ধে পরবর্তী তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন তিনি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম