সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : রায়িদার বিয়ে হয়েছে মাত্র নয়দিন। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন।  স্বামীর সঙ্গে ঘুরতে বেড়িয়েছিলেন। যাত্রাবাড়ী এলাকায় আসার পর ঘাতক বাস তার প্রাণ কেড়ে নেয়। বাসের ধাক্কায় তার স্বামী আল আমিনও আহত হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে রায়িদা তার স্বামীর সঙ্গে ঢাকায় যাচ্ছিলেন ঘুরতে। যাত্রাবাড়ীর রায়েরবাগ হাসেম রোডে পৌঁছামাত্র একটি বাস তাদের ধাক্কা দেয়। এতে রায়িদা ও তার স্বামী ছিটকে রাস্তায় পড়ে যায়। এরপর পেছন থেকে আরেকটি পিকাপভ্যান এসে রায়িদাকে ধাক্কা দিলে তারা দুজনেই আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রায়িদাকে মৃত ঘোষণা করেন।  আহত আল আমিনকে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

নিহত রায়িদা আক্তারের বাবার নাম আবুল খায়ের।তার বাড়ি কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার থানার ফুলতলী গ্রামে। নয়দিন আগে পারিবারিকভাবে আল আমিনের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। রায়িদার স্বামী ক্যান্টনমেন্ট কচুক্ষেত এলাকার একটি মসজিদের পেশ ইমাম।

যাত্রবাড়ী থানার উপপরিদর্শক আবদুল আউয়াল বলেন, ঘটনার পর দ্রুত বাস ও পিক্যাপভ্যানটি আটক করা সম্ভব হয়নি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম