সংবাদ শিরোনাম

 

ক্রীড়া ডেস্ক : ওয়ানডে সিরিজের পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০ সিরিজেও হোয়াইওয়াশের লজ্জায় পড়তে হলো বাংলাদেশ দলকে। টি২০ সিরিজের শেষ ম্যাচটিতে তারা স্বাগতিকদের বিপক্ষে ২৭ রানে হেরে গিয়েছে। ফলে স্বাগতিকরা সীমিত ফরম্যাটের সিরিজটিও জিতে নিয়েছে ৩-০ ব্যবধানে।

বে ওভালের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর এই ম্যাচটিতে রবিবার (০৮ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায়, আর স্থানীয় সময় বিকাল ৩ টায় মাঠে নামে বাংলাদেশ দল। টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি। প্রথমে ব্যাট করে কিউইরা ১৯৫ রানের বিশাল টার্গেট ছুড়ে দেয় সফরকারী বাংলাদেশের সামনে। আর জবাবে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করতে পারে মাশরাফি বাহিনী।

নিউজিল্যান্ডের ১৯৫ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করে বাংলাদেশ। ২৪ রানে তামিম বিদায় নিলেও সৌম্য সরকার দারুণ খেলছিলেন। তামিম ১৫ বলে ২৪ রান করে আউট হন। সৌম্য ও সাব্বির মিলে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন। তবে দলীয় ৮২ রানে সৌম্য ২৮ বলে ৬ চারে ৪২ রান করে বিদায় নিলে ছন্দপতন ঘটে। এরপর ধারাবাহিক উইকেট পতনে আবারও বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং বিপর্যয় দেখা যায়।

১৬ বলে ১৮ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন সাব্বিরও। এরপর মাহমুদউল্লাহও ৩টি চারের মারে ১৪ বলে ১৮ রান করে বোল্ড আউট হয়ে ফিরেছেন সাজঘরে। সাকিবের সঙ্গে মোসাদ্দেক যোগ দিলে কিছুটা আশার আলো দেখছিল বাংলাদেশ। তবে দলকে হতাশ করে মোসাদ্দেক ফিরে যান ব্যক্তিগত ১২ রানে। মোসাদ্দেক ফিরে যাওয়ার পর দলে আর ১১ রান যোগ করতেই বিদায় নেন সাকিবও। তিনি ৩৪ বলে ৪টি চারের মারে ৪১ রান করেছেন।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট ও ইশ সোধি। আর ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মিচেল স্যান্টনার ও কেন উইলিয়ামসন।

এর আগে কিউইদের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টি২০ ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিং করে বাংলাদেশ। আর প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশের সামনে আবারও পাহাড়সমান টার্গেট ছুড়ে দিয়েছে কিউইরা। কোরে অ্যান্ডারসনের ঝড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৪ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিকরা।

এদিন কিউইদের হয়ে সর্বোচ্চ ৯৪ রান করে অপরাজিত ছিলেন অ্যান্ডারসন। অন্যদিকে বাংলাদেশের হয়ে ৩ উইকেট তুলে নেন রুবেল হোসেন।

ম্যাচের শুরুটা এদিন ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের দলীয় ৪১ রানেই তুলে নিয়েছিল ৩ উইকেট। কিন্তু তারপরই অ্যান্ডারসন শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলে। যা বাংলাদেশের বোলাররা শেষ অব্দি ভাঙতে পারেননি। অ্যান্ডারসন ২টি চার ও ১০টি ছয়ের মারে ৯৪ রানের হার না মানা ইনিংস খেলেন। এছাড়া কেন উইলয়ামসন ৬টি চার ও ১টি ছয়ের মারে ৫৯ রান করেন।

বাংলাদেশের হয়ে রুবেল ৩টি এবং মোসাদ্দেক হোসেন ১টি উইকেট নেন।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ঝড়ো ইনিংস খেলার সুবাদে ম্যাচসেরার পুরস্কারটি পেয়েছেন কোরে অ্যান্ডারসন।

উল্লেখ্য, সিরিজের প্রথম ম্যাচে মঙ্গলবার (০৩ জানুয়ারি) নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে ৬ উইকেটে জয় পায় নিউজিল্যান্ড। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে শুক্রবার (০৬ জানুয়ারি) মাউন্ট মঙ্গনুইর বে ওভালে ৪৭ রানে পরাজয়ের শিকার হয় বাংলাদেশ। আর শেষ ম্যাচে এসেও তারা জয়ের দেখা পেলো না। ফলে ওয়ানডে ও টি২০ মিলিয়ে নিউজিল্যান্ডে মোট ৬টি ম্যাচের হারই জুটেছে সফরকারীদের ভাগ্যে।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মাশরাফি বিন মর্তুজা, নুরুল হাসান, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ।

নিউজিল্যান্ড একাদশ : কেন উইলিয়ামসন, জেমস নিশাম, কলিন মানরো, কোরে অ্যান্ডারসন, টম ব্রুস, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, টম ব্ল্যান্ডেল, মিচেল স্যান্টনার, বেন হুইলার, ট্রেন্ট বোল্ট, ইশ সোধি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম