সংবাদ শিরোনাম

 

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের ইসলামপুরে শিক্ষককে পেটানোর ঘটনায় দায়ীদেরকে গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ হয়েছে এলাকায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে অংশ নেয় শিক্ষক-শিক্ষকা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা।

গত বুধবার সহকারী শিক্ষক মাশিকুর রহমান ইসলামপুর জে জে জে এম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের যোগ দিতে যান। এসময় স্থানীয় যুবক শ্যামল তার সহযোগীদের নিয়ে তাকে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে মাশিকুর রহমানকে বেধড়ক পেটায় তারা। পরে ওই স্কুলের অন্য শিক্ষকরা মাশিকুরকে উদ্ধার করে জামালপুর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এই ঘটনাটি ওই স্কুলের শিক্ষকদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে। আর সন্দেহভাজন শ্যামলসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে ইসলামপুর থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী শিক্ষক। কিন্তু তাদের কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

সকালে শিক্ষক পরিবারের ব্যানারে এই ঘটনার শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হয়। একটি মিছিল উপজেলা সদরের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে। পরে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করে সমাবেশ করে বক্তারা। তারা বলেন, শ্যামল ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে এর আগেও এলাকায় সন্ত্রাসী তৎপরতা চালিয়ে আসছেন। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ায় এরা দিনে দিনে আরও বেপরোয়া হয়েছে।

ইসলামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নবী নেওয়াজ খান লোহানী এই মানববন্ধনে বক্তব্য দেন। তিনি বলেন, অভিযুক্ত শ্যামলকে পুলিশ গ্রেপ্তার করা না করলে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুজামান বলেন, শিক্ষকের ওপর হামলা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এই ঘটনার প্রতিকারে শিক্ষা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্ভব সব কিছু করার আশ্বাস দেন এই সরকারি কর্মকর্তা।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম