সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরে মানুষের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলে শাহবাগের জাতীয় যাদুঘরে রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ আয়োজিত ‘পঞ্চদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’র উদ্বোধনকালে এ আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘চলচ্চিত্র শুধু বিনোদন মাধ্যম নয়, একটি শক্তিশালী গণমাধ্যম। উপানুষ্ঠানিক শিক্ষার একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। এর ভালো দিক যেমন আছে, খারাপ দিকও আছে। দর্শকের মনের উপর তার প্রভাব পড়ে।’

রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ আরো বলেছেন, ‘চলচ্চিত্রের ভূমিকা দেশ ও জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ। চলচ্চিত্র নির্মাতা, শিল্পীরা মানুষের কাছে তারকা খ্যাতি পান। বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে তারা খুব জনপ্রিয় হন। তাই সমাজের কাছে দায়বদ্ধ থেকে তাদের সৃজনশীল কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত হওয়া উচিত।’

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার জন্য চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি, আমাদের প্রাচীন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য তুলে ধরতে হবে চলচ্চিত্রে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক শাহরিয়ার আলম।

‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’- স্লোগান নিয়ে উৎসবে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৬৭টি দেশের ১৮৮টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। উৎসব চলবে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত। রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তন, সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তন, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ মিলনায়তন, স্টার সিনেপ্লেক্স ও আমেরিকান (ইএমকে) সেন্টারে উৎসবের চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শিত হবে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম