সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর : লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে টংগীর তুরাগ তীরে অনুষ্ঠিত হলো জুমার নামাজ।

তাবলিগ জামাতের ৫২তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে অংশগ্রহণকারী মুসল্লি ছাড়াও ঢাকা, গাজীপুরসহ আশপাশের জেলাগুলোর মুসল্লিরা অংশগ্রহণ করে জুমার নামাজে।

জুমার নামাজে ইমামতি করেন কাকরাইল মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা ফারুক হোসেন। বিপুল সংখ্যক মানুষ জুমার নামাজে অংশগ্রহণের কারণে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পশ্চিমাংশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এর আগে ফজর নামাজের পর ভারতের মাওলানা ওবায়দুল খোরশেদের আম বয়ানের মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হয়। ওবায়দুল খোরশেদের বয়ানটি বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মাওলানা জাকির হোসেন। দুপুর দেড়টায় অনুষ্ঠিত হয় জুমার নামাজের জামাত।

এবার ৬ হাজার ৮৮৭ জন বিদেশি মুসল্লিসহ ১৬টি জেলার তাবলিগ জামায়াত সদস্য প্রথম পর্বের ইজতেমায় অংশগ্রহণ করছেন।

বিপুল সংখ্যক মুসল্লির অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত জুমার নামাজ উপলক্ষে ইজতেমার নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার।

চিল্লাধারী মুসল্লিদের পাশাপাশি ইজতেমা ময়দানে শুক্রবারের বৃহত্তম জুমার নামাজ আদায় করতে আশপাশের জেলা ও এলাকার মুসল্লিরা ভোর থেকে জমায়েত হন।

১৫ জানুয়ারি (রোববার) আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের সমাপ্তি ঘটবে। চারদিন বিরতির পর ২০ জানুয়ারি (শুক্রবার) থেকে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে। ২২ জানুয়ারি দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ২০১৭ সালের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হবে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম