সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী তিন মাসের মধ্যে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহার তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ২০১৯ সালের শুরুর দিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে কুশল বিনিময় শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, শনিবার আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা এক বছর পর এই অফিসে এসে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এখন থেকে সারাদেশে নির্বাচনের জন্য কাজ করবেন দলের নেতাকর্মীরা। কোথাও কোনো নেতাকর্মীর মধ্যে মতবিরোধ বা দলীয় কোন্দল দেখা দিলে সাংগঠনিকভাবেই এর সমাধান করা হবে।

আইভীর বিজয় সম্পর্কে কাদের বলেন, ‘প্রার্থীর জনপ্রিয়তা এবং দলীয় টিমওয়ার্কের সম্মিলিত প্রয়াসেই আইভীর বিজয় হয়েছে। প্রত্যাশা করি আইভী শুধু তার এলাকায় নয় তার গ্রহণযোগ্যতা দিয়ে আগামী নির্বাচনে দলের বিজয়ের জন্যও কাজ করবে।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যে একটি স্বচ্ছ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ী হতে পারে এরও বড় দৃষ্টান্ত আইভীর বিজয়।’

আলোচনা শেষে আইভী উপস্থিত সবাইকে মিষ্টি খাইয়ে দেন এবং পৃথক পৃথকভাবে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপ-দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন, ইকবাল হোসেন অপু,  মারুফা আক্তার পপি, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল প্রমুখ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম