সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলার রায়ে ২৬ জনকে ফাঁসি এবং নয়জনকে বিভিন্ন মেয়াদে দেয়া দণ্ডের রায়কে অন্যায্য দাবি করেছেন আসামিদের আইনজীবীরা। তাদের দাবি, বিচারক আবেগপ্রবণ হয়ে এই রায় দিয়েছেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ সাতজনকে অপহরণ করা হয়। তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে উদ্ধার করা হয় তাদের মরদেহ। এই ঘটনায় করা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা নুর হোসেন, র‌্যাবের তিন শীর্ষ নেতা তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, এম এম রানা এবং আরিফ হোসেনসহ ২৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয় নারায়ণগঞ্জের একটি আদালত।

এই রায়ে উল্লাস হয়েছে নারায়ণগঞ্জে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপথগামী কর্মীদের জন্য এই রায় একটি বার্তা। আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, অপরাধীদের বিষয়ে ভীতি কাটাতে সাহায্য করবে এই রায়। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে অপরাধ করে কেউ পার পাবে না-এই রায়ে এটাই প্রমাণ হয়েছে।

তবে তারেক সাইদ মোহাম্মদের আইনজীবী মো. শাহাবুদ্দীন দাবি, তার মক্কেলের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার প্রমাণ দেখাতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ। কিন্তু বিচারক আবেগপ্রবণ হয়ে রায় দিয়েছেন।

এই মামলার শুরু থেকেই র‌্যাবের নাম এসেছে। পুলিশ ও প্রশাসনিক তদন্ত এবং আদালতে একাধিক আসামির জবানবন্দিতেও তারেক সাঈদ মোহাম্মদের সম্পৃক্ততা এসেছে। তারপরও এই রায়কে কেন আবেগপ্রবণ বলছেন- জানতে চাইলে সাবেক র‌্যাব কর্মকর্তার এই আইনহজীবী আবার বলেন, ‘এই মামলাটিতে তারেক সাঈদের বিরুদ্ধে কোনো এভিডেন্স নাই।’

কিন্তু পুলিশের তদন্তে তো এসেছে উনিই মূল পরিকল্পনাকার-এমন মন্তব্যের জবাবে এই আইনজীবী বলেন, ‘এটা তো মুখে বললেই হবে না, কাগজপত্রে উপস্থাপন করতে হবে, স্বাক্ষী দিয়ে উপস্থাপন করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘এই রায়ে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারিনি, আমরা উচ্চ আদালতে যাবো।’

আসামিপক্ষের আরেক আইনজীবী সুলতানুজ্জামান বলেন, ‘আমি আসামি তারেক সাঈদের পক্ষে ন্যায়বিচার পাইনি। আমি মনে করি আসামি উচ্চ আদালতে আপিল করলে প্রতিকার পাবেন বলে আমি মনে করি।’

এমন মনে করার কারণ জানতে চাইলে এই আইনজীবী বলেন, ‘তার নিজের ওয়ান সিস্কটি প্লাসে ইট ইজ নট ইনকালবিটরি, ইট ইজ কোয়াইট এক্সকালবিটরি ইন ন্যাচার। অনলি এক্সকালবিটরির ইন ন্যাচারের উপরে পূর্ণাঙ্গ শাস্তি দেয়া সঠিক বলে আমি মনে করি না।’


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম