সংবাদ শিরোনাম

 

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে পৃথক ঘটনায় ভাবির হাতে ননদ ও ভাতিজাদের হাতে চাচা নিহত হয়েছেন।

পারিবারিক দ্বন্দ্বে সোমবার রাতে মহাদান ইউনিয়নের বিলপাড়া গ্রামের আব্দুস সামাদের স্ত্রী সালেহা বেগম (৩৮) এবং জমিসংক্রান্ত বিরোধে মঙ্গলবার সকালে কামরাবাদ ইউনিয়নের নিউগিরটেংগর গ্রামের খুশ মাহমুদ মন্ডলের ছেলে জাবেদ আলী মন্ডল (৬০) নিহত হন।

পুলিশ নিহত জাবেদ মন্ডলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নার্গিস ও আঙ্গুরী নামে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে ননদ হত্যার ঘটনা ধামাচাপার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, পোগলদিঘা ইউনিয়নের পুঠিয়ারপাড় গ্রামের আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম শনিবার রাতে বিলপাড়া গ্রামে তার ননদ সালেহা বেগমের বাড়িতে আসেন। উভয়ের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হলে সালেহা বেগমকে তার ভাবি আনোয়ারা বেগম মারধর করেন। এতে তিনি আহত হয়ে পড়লে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এক পর্যায়ে গুরুতর অবস্থায় সালেহা বেগমকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাতে তিনি মারা যান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানায়, আনোয়ারা বেগমের স্বামী মাদকাসক্ত। তাই ননদের স্বামীর সাথে তার পরকীয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে, বিধায় হত্যাকাণ্ডটি ঘটে বলে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চলছে।

অপরদিকে নিউগিরটেংগর গ্রামের জাবেদ আলী মন্ডলের সাথে তার ভাতিজা দস্তুর মন্ডলের ছেলে ভোলা, কালাম, আজমত, মোফাজ্জলের ছেলে রিপন ও দস্তগিরের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। নভেম্বর মাসে এ জের ধরে উভয়পক্ষে সংঘর্ষ ও জামালপুর আদালতে পাল্টাপাল্টি মামলা হয়। মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে জাবেদ আলী মন্ডল ওই মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে বের হলে রাস্তায় ভাতিজাদের হাতে নিহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শী জাবেদ আলী মন্ডলের নাতি মিস্টার মিয়া জানায়, ‘বাড়ির আঙিনায় ওৎপেতে থাকা ভোলা ও কালাম তার দাদার ওপর লাঠিসোঠা নিয়ে অতর্কিত হামলা করে। এতে তিনি মাটিয়ে লুটিয়ে পড়লে হামলাকারীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।’

নিহতের স্ত্রী আমেনা বেগম জানান, ‘ভাতিজাদের ভয়ে তার স্বামী বড়মেয়ে জাবেদার বাড়িতে ছিলেন। সোমবার রাতে তিনি নিজবাড়িতে আসেন।’

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান বলেন, ‘নিহত জাবেদ মন্ডলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করা হয়েছে। অপর ঘটনাটি শুনেছি, বিষয়টি খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের আলামত পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম