সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর : টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে শুক্রবার ফজরের নামাজের পর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী ৫২তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। দিল্লির মাওলানা মোহাম্মদ শামীম আমবয়ান করেন। বয়ানের বাংলা তরজমা করেন বাংলাদেশের মাওলানা নুরুর রহমান। দুপুরে ইজতেমায় অনুষ্ঠিত হয়েছে জুম্মার নামাজ। বেলা ১টা ৪২ মিনিটে জুমার নামাজ শুরু হয়। নামাজে লাখ লাখ মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। ইমামতি করেন কাকরাইল মসজিদের ইমাম রবিউল হক।

এর আগে জুমার নামাজে অংশ নিতে ভোর থেকেই ইজতেমা মাঠে আসতে শুরু করেন মুসল্লিরা। দুপুর ১২টার দিকে ইজতেমা মাঠ উপচে আশপাশের খোলা জায়গাসহ সব স্থান জনসমুদ্রে পরিণত হয়। মাঠে স্থান না পেয়ে অনেকে মহাসড়ক ও অলি-গলিসহ যে যেখানে পেরেছেন পাটি, চটের বস্তা, খবরের কাগজ বিছিয়ে জুমার নামাজে শরিক হয়েছেন। এসময় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বেশ কিছুক্ষণের জন্য যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

২২ জানুয়ারি রবিবার আখেরি মোনাজাতের দিন পর্যন্ত মুসল্লিদের ইজতেমা ময়দানে আসা অব্যাহত থাকবে। দ্বিতীয় পর্বের তিন দিনব্যাপী ইজতেমায় অংশ নিতে ইতোমধ্যে ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে দেশের নির্দিষ্ট ১৭টি জেলা থেকে আসছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। তাদের নিয়ে মাঠে চলছে আলাদা আলাদা বয়ানও। আগত মুসল্লিদের সুবিধার্থে বিভিন্ন দিক নির্দেশনামূলক চিহ্ন তৈরি করা হয়েছে।

ইজতেমায় বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানের তাবলিগ মারকাজের শুরা সদস্য ও বুজর্গরা বয়ান পেশ করেন। মূল বয়ান উর্দুতে হলেও বাংলা, ইংরেজি, আরবি, তামিল, মালয়, তুর্কি ও ফরাসিসহ বিভিন্ন ভাষায় তাৎক্ষণিক অনুবাদ করা হয়। ইজতেমায় বিভিন্ন ভাষাভাষি মুসল্লিরা আলাদা আলাদা বসেন এবং তাদের মধ্যে একজন করে মুরব্বি মূল বয়ানকে তাৎক্ষণিক অনুবাদ করে শোনান।

বিশ্ব ইজতেমার কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আম ও খাস বয়ান, তালিম, তাশকিল, ছয় উছুলের হাকিকত, দরসে কোরআন, দরসে হাদিস, চিল্লায় নাম লেখানো, নতুন জামাত তৈরি। আগামী ২২ জানুয়ারি দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ২০১৭ সালের বিশ্ব ইজতেমা।

ইজতেমায় বিদেশি মুসল্লিদের অংশগ্রহণ

এবারের ৫২তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত এক হাজার ৫২৭ জন বিদেশি মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে এসে উপস্থিত হয়েছেন। গাজীপুর জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মো. মোমিনুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন। এরমধ্যে নাইজেরিয়া, পানামা, মিসর, ওমান, সুদান, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব-আমিরাত, কাতার, অস্ট্রেলিয়া, বরুনাই, কানাডা, কম্বোডিয়া, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, জার্মানি, ইরান, জাপান, মাদাগাস্কার, মালি, সেনাগাল, দক্ষিণ আফ্রিকা, তাঞ্জেনিয়া, ত্রিনিদাদ, রাশিয়া, আমেরিকা, বেলজিয়াম, ক্যামারুন, চীন, ফিজি, ফ্রান্স, ইন্দোনেশিয়া, ইটালি, কেনিয়া, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কা, সুইডেন, থাইল্যান্ড, তুর্কি, যুক্তরাজ্য, কোরিয়া, আলজেরিয়া, ইরাক, ফিলিস্তিন, কুয়েত, মরক্কো, কাতার, সোমালিয়া, সিরিয়া, তিউনিসিয়া, ইয়েমেন, বাহরাইন, জর্দান, মৌরিতানিয়া, দুবাইসহ বিভিন্ন রাষ্ট্রের মুসল্লিরা রয়েছেন।  মুসল্লিদের এ সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম