সংবাদ শিরোনাম

 

শামীম খান গৌরীপুর, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের বাংলা বিভাগের ছাত্রী ডলি আক্তার (২০)। সে গৌরীপুর উপজেলার সহনাটি ইউনিয়নের দৌলতাবাদ গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের কন্যা। ৭ ভাই ও ৫ বোনের মাঝে সে সর্বকনিষ্ঠ। এইচ.এস.সিতে পড়া অবস্থায় ডলির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী মাওহা ইউনিয়নের বীরআহাম্মদপুর গ্রামের আজিজুল হকের পুত্র টিপু সুলতানের (২৩) সাথে। টিপু নেত্রকোণা সরকারি কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের রসায়ন বিভাগের ছাত্র। ক্রমান্বয়ে তাদের দুজনের প্রেমের সম্পর্ক রূপ নেয় দৈহিক সম্পর্কে। এক পর্যায়ে এ ঘটনা জানাজানি হলে উভয় পক্ষের পরিবারের সম্মতিতে গত বছর মে মাসের ৮ তারিখে রেজিষ্ট্রি কাবিনমূলে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েকদিন পর প্রতারণার উদ্দেশ্যে টিপু তার স্ত্রীকে ফেলে রেখে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পালানোর পর টিপুর ব্যবহৃত সকল মোবাইল সিম বন্ধ করে রাখে। এদিকে ডলিকে বাড়ি থেকে বিতাড়িত করতে শ্বাশুড়ী মনোয়ারা বেগম, ভাসুর শফিকুল ইসলাম ও রফিকুল ইসলাম তার ওপর ধারাবাহিক ভাবে অমানবিক নির্যাতন-অত্যাচার শুরু করে। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রায় ৪ মাস পর হাত-পা বেঁধে মারধোর করে জোরপূর্বক বাড়ি থেকে ডলিকে নিজ পিত্রালয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়। এ নিয়ে  স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতে বেশ কয়েকটি দেন-দরবার হলেও বিষয়টি কোন আপোষ-মীমাংসা হয়নি। এব্যাপারে ভোক্তভোগী ডলি গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। গৌরীপুর থানার এস আই শাহজালাল জানান অভিযোগের প্রেক্ষিতে উভয়পক্ষকে শুক্রবার (২০ জানুয়ারী)  থানায় হাজির করা হলেও বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়নি। এ বিষয়ে ডলির ভাসুর শফিকুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানায় উক্ত বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই তার ভাই টিপু সুলতান বাড়ি ছেড়ে আতœগোপনে রয়েছে। এসময় তিনি ডলির ওপর নির্যাতনের কথা অস্বীকার করে বলেন সে স্বেচ্ছায় তার শ্বশুরবাড়ি থেকে চলে গিয়েছিল। সেসময় গৌরীপুর থানায় এব্যাপারে একটি সাধারণ ডায়রী করা হয়েছিল। ডলি তার ভাসুরের মন্তব্যের বিরোধিতা করে বলেন তিনি স্বেচ্ছায় শ্বশুড়বাড়ি ত্যাগ করেনি। এটি তাদের সাজানো নাটক। বর্তমানে ডলি তার ওপর নির্যাতন-অত্যাচার ও স্বামীর প্রতারণার  ঘটনার সুষ্ঠ বিচারের দাবিতে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম