সংবাদ শিরোনাম

 

স্টাফ রিপোর্টার,  ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহের নান্দাইলের কৃষকরা প্রচন্ড শীত ও হিমেল হাওয়া উপেক্ষা করে বোরো ধান রোপনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। বিস্তীর্ণ এলাকার মাঠজুড়ে বোরো আবাদের ধুম চলছে এখন। ভোরের আলো ফোটার আগেই কোমর বেধে ফসলের মাঠে নেমে পড়ছেন কৃষকরা। কুয়াশায় ঢাকা শীতের সকালে বীজতলায় ধানের চারা পরিচর্যার পাশাপাশি জমি চাষের কাজ চলছে পুরোদমে।
নদীর পাড়ে, খালের ধারে, রাস্তার পাশের জমিতে, বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠে ধানের কচি চারার সবুজ গালিচা। কোথাও গভীর নলকূপ থেকে চলছে জলসেচ, ট্রাক্টর, পাওয়ার টিলার দিয়ে কোথাও চলছে জমি চাষের কাজ। আবার বোরো ধান রোপনের জন্য বীজতলা থেকে তোলা হচ্ছে ধানের চারা।
উপজেলা সদর, নান্দাইল, আচারগাঁও, চন্ডীপাশা, শেরপুর, জাহাঙ্গীরপুর, গাঙ্গাইল, রাজগাতী, মুশুল্লী, মোয়াজ্জেমপুর, বেতাগৈর, খারুয়া ইউনিয়নগুলো ঘুরে দেখা গেছে, বোরো আবাদের জন্য কৃষকরা জমি তৈরি করে ধানের চারা রোপন শুরু করেছেন।
উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের দশালিয়া গ্রামের কৃষক রায়হান জানান, এবার তিনি পাঁচ একর জমিতে বোরো আবাদ করবেন। সেজন্য চার কাঠা জমিতে বীজতলা তৈরি করেছেন। ইতোমধ্যে এক একর জমি চাষ সম্পন্ন হয়েছে। দু-একদিনের মধ্যে চারা রোপন শুরু করবেন।
নান্দাইল উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এবার চলতি বোরো মৌসুমে ২২ হাজার ৯৯০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১২৯৫ হেক্টর জমিতে উফশী (উচ্চ ফলনশীল), ২০ হাজার ৫৯০ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড এবং ১০৫ হেক্টর জমিতে স্থানীয় জাতের বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
উপজেলা কৃষি সহকারী সম্প্রসারণ কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন বলেন, আবহাওয়া ও পরিবেশ অনুকূলে থাকলে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে এবার।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম