সংবাদ শিরোনাম

 

ক্রীড়া প্রতিবেদক : মাঠের বাইরে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের অনাকাঙ্খিত বিভিন্ন ঘটনায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিব্রত।

বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাফ জানিয়েছেন আদালত যদি কোনো ক্রিকেটারকে নারী কেলেঙ্কারী কিংবা অন্য কোনো ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত করে, তাহলে বিসিবিও তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করবে। প্রয়োজনে আজীবন নিষিদ্ধও করতে পারে ক্রিকেটারকে! মঙ্গলবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন পাপন।

নাসরিন সুলতানা নামের এক তরুণীর তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় রোববার পুলিশ আরাফাত সানীকে গ্রেপ্তার করে। সোমবার সানী ও তার মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে যৌতুকের মামলা করেছেন সানীর স্ত্রী দাবি করা ওই তরুণী। এর আগে পেসার ‍রুবেল হোসেন নারী ঘটিত ঘটনায় এবং পেসার শাহাদাত হোসেন রাজীব শিশু নির্যাতনের ঘটনায় জেল খেটেছেন।

‘আমাদের তিনজন ক্রিকেটার যারা জেলে গিয়েছে, কখনই কিন্তু বিসিবি তাদের পাশে ছিল না। তারা অন্যায় করেছে শাস্তি পেয়েছে। যে সমস্ত ঘটনাগুলো ঘটছে সেগুলোতে কিন্তু আমরা ধারাবাহিকভাবে শাস্তি দিয়ে আসছি। আমরা কিন্তু কাউকে ছাড় দিচ্ছি না। লাখ টাকার উপরও শাস্তি প্রদান করেছি। কিন্তু মনে হচ্ছে কাজ হচ্ছে না। এ জিনিস বিসিবি কখনোই বরদাস্ত করবে না। গ্রহণযোগ্যও হবে না। প্রমাণ সাপেক্ষে অবশ্যই এ ধরণের ক্রিকেটারদের আজীবন নিষিদ্ধ করা হবে। আলাদাতে প্রমাণ করলে অবশ্যই সানীকেও নিষিদ্ধ করা হবে।’-বলেছেন নাজমুল হাসান পাপন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম