সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাচন কমিশনে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে রাষ্ট্রপতির গঠন করা সার্চ কমিটির বিরোধিতা না করতে বিএনপিকে সতর্ক করে দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এই কমিটির বাছাই করা নির্বাচন কমিশনের অধীনেই বিএনপিকে আগামী নির্বাচনে যেতে হবে জানিয়ে তিনি বলেছেন, শুধু শুধু এ নিয়ে কেন বিএনপি বিতর্ক করবে।

বৃহস্পতিবার সকালে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে জাপানি রাষ্ট্রদূত মাসাতো ওয়াতানাবির সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তোফায়েল আহমেদ। নির্বাচন কমিশনে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে বুধবার রাষ্ট্রপতির চিঠির পর গঠন হয় ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি। আপিল বিভাগের একজন বিচারপতির নেতৃত্বে এই কমিটিতে আছেন আরও পাঁচ জন।

এই কমিটিতে আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে নাম জমা দিতে বলেছে বঙ্গভবন। তাদের সুপারিশের পরই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কমিশনে নিয়োগ চূড়ান্ত করবেন।

কাজী রকিবউদ্দীন আহমেদের নেতৃত্বে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী মাসের শুরুতেই। তাদের মেয়াদ শেষে নতুন কমিশন গঠনের জন্য গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ ৩১টি দলের সঙ্গে সংলাপ করেছেন রাষ্ট্রপতি। আর এই সংলাপ শেষের এক সপ্তাহের মধ্যেই গঠন হলো সার্চ কমিটি।

বুধবার গঠিত সার্চ কমিটির সদস্যদের দেখে বিএনপির ক্ষুব্ধ বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, এই কমিটি সরকারের ইচ্ছায় হয়েছে।

এর জবাবে তোফায়েল বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিএনপি তাদের কথা জানিয়েছে। তারা ওই সময় উচ্ছ্বাসও প্রকাশ করেছে। কিন্তু এখন আবার রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘রাষ্ট্রপতির যে সার্চ কমিটি গঠন করেছে সেটিকে আমার কাছে নিরপেক্ষই মনে হয়েছে। এই সার্চ কমিটিকে বিতর্কিত করা বিএনপির উচিত হবে না। কারণ এটিকে বিতর্কিত করলে বিএনপিই বিপদে পড়বে। তাদেরকে তো এই কমিটির বাছাই করা কমিশনের অধীনেই আগামী নির্বাচনে যেতে হবে। তাহলে কেন এটিকে তারা বিতর্কিত করবে।’

গত নির্বাচন বর্জন করলেও বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘গত নির্বাচনে না গিয়ে বিএনপির অনেক ক্ষতি হয়েছে। প্রকাশ্যে তারা এই কথা না বললেও অনেকের সঙ্গে ব্যক্তিগত আলাপ হলে তারা সেটা স্বীকার করেন। সুতরাং তারা আগামী নির্বাচনেও আসবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যেটা করি সেটারই বিরোধিতা করে বিএনপি। কোথা থেকে লোক এনে সার্চ কমিটি করবেন। সেটারই বিরোধিতা করবে তারা। তারা যদি রাষ্ট্রপতির কাছে কোনো প্রস্তাব দিতেন, আর ওই প্রস্তাব থেকে যদি রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি গঠন করতো তাহলে তারা বিরোধিতা করতো না। কিন্তু এটা তো বাস্তবসম্মত না।’


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম