সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক বলেছেন, টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে জনগণের আবাসন সুবিধা নিশ্চিত করতে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি ও পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
তিনি বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো যদি দেশের সাধারণ মানুষের জন্য আবাসন ব্যবস্থা গড়ে তুলে তবেই ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সক্ষম হবে।
বৃহস্পতিবার সকালে কাকরাইলের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে মৈত্রী ইকো ভিলেজ লিমিটেডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মৈত্রী ইকো ভিলেজের চেয়ারম্যান একেএম আজিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ছাত্রনেতা ইসমত কাদির গামা, মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন আহমদ বীর বিক্রম প্রমুখ।
আকম মোজাম্মেল হক দেশের উন্নয়নে এবং আবাসন সুবিধাকে জনগণের দোর-গোড়ায় পৌঁছে দিতে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের আরো বেশি অগ্রণী ভূমিকা পালন করার জন্য আহবান জানান।
তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ যেন কম মূল্যে আবাসন পায় সেই লক্ষ্যে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসতে হবে।
রাজধানী হতে ১৮ কিলোমিটার দূরে ঢাকা- মাওয়া রোড সংলগ্ন পরিবেশ বান্ধব মৈত্রী ইকো ভিলেজ নামে এই আবাসন এলাকা গড়ে তোলা হচ্ছে বলে উদ্যোক্তারা জানান।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম