সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : জেলে যেতে নয় বরং জেল ভাঙার জন্য নেতাকর্মীদের তৈরি হতে বলেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘১৬ কোটি মানুষকে এই ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। এখন জেলে যাওয়ার জন্য তৈরি হলে চলবে না, জেল ভাঙার জন্য তৈরি হতে হবে।’

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। দলের সহসাংগঠনিক সম্পাদক মো. শরীফুল ইসলামের কারামুক্তির দাবিতে এই সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকাস্থ কিশোরগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী দল।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গণতান্ত্রিক আন্দোলনের জন্য অনেক নেতাকর্মী জেলে আছেন। আমাদের প্রত্যেকের সাত আট বার করে জেলে যাওয়া হয়েছে গেছে।’ তিনি বলেন, এখন আর জেলে যেতে ভয় লাগে না। জেলে যাওয়ার জন্য আগে থেকেই তৈরি হয়ে আছি। মানসিকভাবে প্রস্তুতিও নিচ্ছি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, রাজনৈতিক নেতাদের বিরুদ্ধে ভ্যানিটি ব্যাগ, প্যান্ট চুরি, ৮০ বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণের মামলা হচ্ছে। এগুলো করা হচ্ছে বিরাজনীতিকরণের জন্য। ওয়ান ইলেভেনের সময় মইনুদ্দিন, ফখরুদ্দিন করেছিল আর এখন করছে আওয়ামী লীগ।

এ সময় নিজেদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ বন্ধ করে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান ফখরুল। বলেন, ঝগড়া-বিবাদ বন্ধ করে নিজেদের ঐক্যর পাশাপাশি জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

সমাবেশে তেল-গ্যাস বন্দর রক্ষা কমিটির ডাকা হরতালে পুলিশের ভূমিকার সমালোচনা করেন ফখরুল। বলেন, তেল গ্যাস খনিজসম্পদ রক্ষা আন্দোলনের কিছু মানুষ রাস্তায় নেমেছেন। বৃদ্ধ মানুষকে পুলিশ পেটাচ্ছে। একজন সাংবাদিক ভাইকে নির্মমভাবে প্রহার করছে। এটাই এই সরকার সহ্য করতে পারছে না। তারা কোনো রকম ভিন্নমত সহ্য করতে পারে না।

সংগঠনের সভাপতি শেখ মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামের পরিচালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফজলুর রহমান, আবদুস সালামসহ অনেকে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম