সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : নেত্রকোনার চারজনের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। তদন্ত সংস্থার ধানমণ্ডির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ৫৪৬ পৃষ্ঠার এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। সংস্থার সমন্বয়ক আবদুল হান্নান খান জানান, শীঘ্রই এ প্রতিবেদন ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন টিমের কাছে হস্তান্তর করতে হবে।

অভিযুক্ত চারজন হলেন মো. খলিলুর রহমান (৭২), মো. আজিজুর রহমান (৬৫), আশক আলী (৮২) ও মো. শাহনেওয়াজ (৮৮)। আসামিদের সবাই জামায়াতের সমর্থক।

মোট পাঁচ অভিযুক্তের মধ্যে রমজান আলী গ্রেফতার থাকাকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মারা যান। বাকি চার আসামির মধ্যে তিনজন গ্রেফতার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। পলাতক রয়েছেন আসামি খলিলুর রহমান। গ্রেফতার আজিজুর রহমান ও পলাতক খলিলুর রহমান সম্পর্কে ভাই।

আসামিদের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল তদন্ত শুরু হয়। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রায় দুই বছর তদন্ত শেষে রবিবার (৩০ জানুয়ারি) চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হল। এই মামলাটি তদন্ত করেন ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার সদস্য মো. বদরুল আলম।

আসামিদের বিরুদ্ধে নেত্রকোণার দুর্গাপুর ও কলমকান্দা থানার বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ আটক, নির্যাতন, অপহরণ, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণ, হত্যা ও গণহত্যার মতো মানবতাবিরোধী পাঁচটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

অভিযোগের মধ্যে রয়েছে- ২২ জনকে হত্যা (যার মধ্যে একজনকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে হত্যা), একজনকে ধর্ষণ, একজনকে ধর্ষণের চেষ্টা, অপহৃত চারজনের মধ্যে দুজনকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ক্যাম্পে আটক করে অমানসিক নির্যাতন এবং ১৪/১৫টি বাড়িতে লুটপাট করত: সাতটি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম