সংবাদ শিরোনাম

 

বিনোদন প্রতিবেদক : ‘ভাইয়া, খুবই ব্যস্ততার মধ্যে আছি। বিয়ের ব্যস্ততা কেমন বুঝতেই তো পারেন। দম ফেলার সময় পাচ্ছি না।’ মঙ্গলবার সকালে সঙ্গীতশিল্পী পূজার সঙ্গে ফোনালাপ। এর কিছুক্ষণ পরেই এসএমএস, ‘স্যরি ভাইয়া, আমাদের টানা অনুষ্ঠান তো! তাই কথা বলতে পারছি না। বেশী জরুরি কিছু হইলে এসএমএস করেন।’

মুঠোফোনের কথোপকথনে জানা গেলো, আজ পূজার আশীর্বাদ। কাল পূজার বিয়ে। নতুন জীবনের পথ চলায় সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন পূজা। এ শিল্পী জানান, ভাষার মাস ফেব্রুয়ারির প্রথম দিনেই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন তিনি। বরের নাম অর্ণব দাস অন্তু, একটি বেসরকারি কোম্পানিতে কর্মরত। পাশাপাশি মডেলিংও করছেন।

গতকাল পূজার গায়ে হলুদ সম্পন্ন হয়েছে। আজ চলছে আশীর্বাদ। কাল বসবেন বিয়ের পিঁড়িতে। পূজা বলেন, ‘আমাদের বিয়েতে তো অনেক আনুষ্ঠানিকতা থাকে। সেগুলো নিয়ে খুবই ব্যস্ততার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।’

একটি টিভি চ্যানেলের সঙ্গীতবিষয়ক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ২০০৮ সালে বাঁধন সরকার পূজা কণ্ঠশিল্পী হিসেবে পরিচিতি পান। তখন নবম শ্রেণিতে পড়তেন, এখন বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শেষের দিকে আছেন।

২০১৬ সালের মাঝামাঝিতে প্রকাশ হওয়া পূজার ‘অবুঝ পাখি’ গানে মডেল হয়েছিলেন অন্তু। সেখান থেকেই শুরু বন্ধুত্বের। ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। এরপর মন দেওয়া-নেওয়ার সূত্র এবার বসছেন বিয়ের পিঁড়িতে।

বিয়ের পরও গানের সঙ্গেই ব্যস্ত থাকবেন পূজা। তিনি বলেন, ‘অর্ণব অন্তু আমার গানের ব্যাপারে খুবই শ্রদ্ধাশীল। বিয়ের পরও গানের সঙ্গে আছি, থাকবো।’ এ কণ্ঠশিল্পী জানান, আগামী বৈশাখেই আসবে তার নতুন একক অ্যালবামে।

এর আগেই প্রকাশ হবে সিঙ্গেল ‘ফানুস’। তানজীব সারোয়ারের কথা ও সুরে গানটির রেকডিং শেষ হয়েছে। কন্ঠ দিয়েছেন তানজীবও। অন্যদিকে সম্প্রতি সাদ শাহর সুর ও সংগীতায়োজনে ‘খুঁজে যাই’ শিরোনামের গানে কণ্ঠ দিয়েছেন পূজা।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম