সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার মৃত ওয়াজ উদ্দিনকে পলাতক দেখিয়ে বিচার শুরু করায় ময়মনসিংহের পুলিশ সুপারকে (এসপি) তলব করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি তাকে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইদিনে এ বিষয়ে পুলিশ মহাপরিদর্শককেও (আইজিপি) লিখিত ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে দুই বিচারপতির ট্রাইব্যুনাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেয়। একই সঙ্গে মৃত ওয়াজ উদ্দিনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

পলাতক আসামির মৃত্যুর সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশের পর ১২ জানুয়ারি ক্ষোভ প্রকাশ করে ট্রাইব্যুনাল। ওই দিন বিষয়টি খতিয়ে দেখতে প্রসিকিউশনকে মৌখিক নির্দেশনা দেয়া হয়।

ওইদিনই ময়মনসিং জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (পুলিশ সুপার) একটি প্রতিবেদন ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হয়। যেখানে আসামি ওয়াজ উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি ট্রাইব্যুনালকে অবহিত করা হয়।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ২০১৬ সালের ৭ মে ওয়াজ উদ্দিনের মৃত্যু হয়। এতে তার একটি মৃত্যু সনদও যুক্ত করা হয়েছে। মৃত্যুর আট মাস পর এ প্রতিবেদন দেয়া হয়।

দেখা যায় ওয়াজ উদ্দিনের মৃত্যুর সাত মাস পর ২০১৬ সালের ১১ ডিসেম্বর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু হয়।

একাত্তরের হত্যা, গণহত্যা মামলার আসামি ওয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের অক্টোবরে তদন্ত শুরু করে তদন্ত সংস্থা। ২০১৫ সালের ১১ আগস্ট তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। শুরু থেকেই পলাতক দেখিয়ে তাকে ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বলেও পুলিশের রিপোর্টে বলা হয়।

গত ১১ ডিসেম্বর ওয়াজ উদ্দিনকে পলাতক ঘোষণা করে, তারপক্ষে রাষ্ট্রীয় খরচে আইনজীবী নিয়োগ দিয়ে বিচার শুরুর আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল। ওই মামলার অপর আসামি রিয়াজ উদ্দিন ফকির কারাগারে আছেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম