সংবাদ শিরোনাম

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সংবিধান লঙ্ঘন ও কট্টর অভিবাসন নিষেধাজ্ঞার জেরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে দেশটির চারটি রাজ্য মামলা দায়ের করেছে। হোয়াইট হাউসের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরকারী ওই চার রাজ্য হলো – ম্যাসাচুসেটস, নিউ ইয়র্ক, ভার্জিনিয়া ও ওয়াশিংটন।

৭০ বছর বয়সী মার্কিন ধনকুবের ও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইতিমধ্যে দেশটির ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল স্যালি ইয়েটসকে বহিষ্কার করেছেন। সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে স্থগিতাদেশ দেয়ায় বহিষ্কার করা হয় তাকে।

বোস্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে ম্যাসাচুসেটসের অ্যাটর্নি জেনারেল মওরা হিলে বলেন, মূলত এটি সংবিধানের পুরোপুরি লঙ্ঘন। এটি ধর্মের কারণে মানুষের বিরুদ্ধে বৈষম্য, এটি ভিন্ন বংশোদ্ভূত মানুষের বিরুদ্ধে বৈষম্য।

উদারপন্থী রাজ্য ওয়াশিংটন দেশটির প্রথম রাজ্য হিসেবে মামলা দায়ের করেছে ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে। রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল ট্রাম্পের জারিকৃত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। নিউ ইয়র্ক এবং ভার্জিনিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেলও ওয়াশিংটনের পথে হাঁটছেন। এ দুই রাজ্যের অ্যাটনি জেনারেল বলেছেন, তাদের রাজ্যও একই ধরনের মামলা দায়ের করতে যাচ্ছে।

নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্নেইডারম্যান সাত মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞাকে অবৈধ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ট্রাম্পের আদেশ অসাংবিধবানিক, বেআইনী ও মৌলিক দিক থেকে অমার্কিনী।

এর আগে, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে শরণার্থীগ্রহণ কর্মসূচি ১২০ দিনের জন্য স্থগিত করা হয়। সিরীয় শরণার্থীদের জন্য অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। এছাড়া ইরান, ইরাক, ইয়েমেন, লিবিয়া, সোমালিয়া ও সুদানের শরণার্থীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ৯০ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করে ট্রাম্প প্রশাসন।

সূত্র : দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম