সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা : প্রয়োজনীয় চিকিৎসক ও জনবল না থাকায় সাতক্ষীরার তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা।

উপজেলার তিন লাখ মানুষের একমাত্র স্বাস্থ্য সেবাদানকারী সরকারি এ প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন চিকিৎসা নিতে আসেন পাঁচ শতাধিক মানুষ। ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এ হাসপাতালে ৩৪টি ডাক্তারের পদ থাকলেও রয়েছেন মাত্র ৯ জন। বাকি ২৫টি পদে কোনো চিকিৎসক নেই।

তালার গোপালপুর এলাকার রাশেদুল ইসলাম  জানান, চিকিৎসা সেবা নিতে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। কয়েকজন চিকিৎসক আর কতই রোগী দেখতে পারেন। অনেকে চিকিৎসা না নিয়ে ফিরে যান।

তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান অফিস সহকারী হাফিজুর রহমান বলেন, তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রথম শ্রেণির কর্মচারী ৩৪ জনের স্থলে রয়েছেন ৯ জন, দ্বিতীয় শ্রেণির ২৫ জনের স্থলের রয়েছেন ১৮ জন, তৃতীয় শ্রেণির ১৪৪ জনের স্থলে রয়েছেন ১১২ জন ও চতুর্থ শ্রেণির ২৭ জনের স্থলে রয়েছেন ১৪ জন। মোট ২৩০টি পদের মধ্যে ৭৭টি গুরুত্বপূর্ণ পদ শূন্য রয়েছে। যার মধ্যে ডাক্তারের ২৫ পদই শূন্য। সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

সুজনশাহ এলাকার আবুল কালাম অভিযোগ করে বলেন, অপারেশন থিয়েটার, আধুনিক যন্ত্রপাতি থাকা সত্ত্বেও অ্যানেসথেশিয়া ডাক্তার না থাকায় ছোট বড় কোনো অপারেশন এখানে করা হয় না। নিরুপায় হয়ে রোগীরা পার্শ্ববর্তী কোনো ক্লিনিকে যেতে বাধ্য হয়। সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তালার মানুষ।

তবে স্বাস্থ্য সেবা বঞ্চিতের বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. শেখ কুদরত-ই-খুদা  বলেন, প্রতি মাসে জেলা প্রশাসক কার্যালয় ও সিভিল সার্জন অফিসে লিখিতভাবে জানানো হচ্ছে। কিন্তু কোনো ফলাফল হচ্ছে না।

কাঙ্ক্ষিত সেবা বঞ্চিত হওয়ার বিষয়টি তিনি স্বীকার করে বলেন, আমরা সাধ্যমত চেষ্টা করে যাচ্ছি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম