সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : নদীর সীমানা নির্ধারণে পুনঃজরিপের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত নদীর দুই তীরে সব স্থাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখতে হবে। একই সঙ্গে বুড়িগঙ্গার তীরভূমিতে ১৩টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ এবং আদি বুড়িগঙ্গা চ্যানেলের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

বুধবার নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ে চট্টগ্রামের কর্ণফুলি নদীসহ ঢাকার চারপাশে নদীগুলোর দূষণরোধ এবং নাব্যতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত ‘টাস্কফোর্স’ এর ৩৪ তম সভায় এসব তথ্য জানান নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। মন্ত্রী বলেন, নদী বন্দর এলাকায় নদীর ফোরসোর এর লিজ মানি (খাজনা নয়) বিআইডব্লিউটিএ ছাড়া অন্য কারো কাছ থেকে নেয়া যাবে না।

মন্ত্রী বলেন, নদীর সীমানা ও তীরভূমি নিয়ে জটিলতা নিরসনে জরিপ অধিদপ্তর থেকে নকশা তুলে জেলা প্রশাসকদের সরবরাহ করার লক্ষ্যে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের জন্য নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ২৫ লাখ টাকা বরাদ্দ রেখেছে। ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ ও মানিকগঞ্জের জন্য দুই হাজার ৫৮৬টি সি এস জরিপ ম্যাপ এবং দুই হাজার ৭৩টি আর এস জরিপ ম্যাপ সংগ্রহ করা হবে।

মন্ত্রী জানান, চট্টগ্রামের হালদা নদী এবং সাভারের চামড়া শিল্পনগরীর দূষণরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি জানান, রাজধানীর হাজারীবাগ থেকে সাভারের চামড়াশিল্প নগরীতে এখন পর্যন্ত ৪৩টি বড় ট্যানারি স্থানান্তরিত হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, নদী বন্দর এলাকায় শক্ত আরসিসি সীমানা পিলার নির্মাণ/পুন:নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) ডিপিপি অনুমোদনের জন্য নৌপরিবহন মন্ত্রলালয়ে পাঠিয়েছে। ঢাকা শহরের চারপাশে ৫০ কিলোমিটার এলাকায় সাড়ে নয় হাজার আরসিসি পিলার নির্মাণ/পুন:নির্মাণ করা হবে।

সভায় সভায় চট্টগ্রাম কর্ণফুলি নদীসহ ঢাকার চারপাশের নদীগুলোর দূষণরোধ এবং নাব্যতা বৃদ্ধির জন্য ‘মহাপরিকল্পনা’ তৈরির কমিটিতে অন্যান্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, দপ্তর ও সংস্থাকে কো-অপ্ট করার বিষয়েও আলোচনা হয়।

এলজিআরডি মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালককে (প্রশাসন) সদস্য সচিব করে গত ৫ ডিসেম্বর একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির প্রথম সভা ২ ফেব্রুয়ারি এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেনসহ অন্যান্য মন্ত্রনালয়ের প্রতিনিধিরা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম