সংবাদ শিরোনাম

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাতটি মুসলিম দেশের বিমানযাত্রীদের ওপর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা একটি আদালত সাময়িকভাবে স্থগিত করে দেওয়ার পর ওইসব দেশের লোকদের এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে।

মার্কিন কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বিমান সংস্থাগুলোকে বলে দিয়েছে যেন ওই সাতটি দেশের লোকদের যুক্তরাষ্ট্রগামী বিমানে উঠতে দেওয়া হয়। খবর বিবিসি বাংলার।

উপসাগরীয় বিমান সংস্থা কাতার এয়ারওয়েজ বলেছে, তারা এ খবরের সাথে সাথেই বিমানে যাত্রী ওঠানো শুরু করতে যাচ্ছে।

এর আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক নির্বাহী আদেশে সিরিয়া, ইরাক, ইরান, লিবিয়া, সোমলিয়া, সুদান ও ইয়েমেন- এই দেশগুলোর লোকদের যুক্তরাষ্ট্রে ঢোকা নিষিদ্ধ করেন। এর পর গতকাল সিয়াটলের একজন বিচারক ওই আদেশটি সাময়িকভাবে আটকে দেন।

বিচারপতি জেমস রবার্ট তার রুলিংয়ে বলেন, মার্কিন সংবিধানে কোনো বিশেষ ধর্মের প্রতি পক্ষপাত দেখানো নিষিদ্ধ করে যে ধারা রয়েছে- প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই আদেশ তার লংঘন। ট্রাম্পের সরকার আদালতের এ আদেশে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছে, তারা এর বিরুদ্ধে আপিল করবে বলে জানিয়েছে।

হোয়াইট হাউসের একজন মুখপাত্র বলেন, প্রশাসন মনে করে যে এ পদক্ষেপ যথাযথ এবং আইনসঙ্গত ছিল। দেশকে সুরক্ষা দেবার জন্যই প্রেসিডেন্ট এ আদেশ দিয়েছিলেন।

ট্রাম্প এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর বিভিন্ন আদালতে একাধিক মামলা হয়। এর পর বিভিন্ন দেশের বিমানবন্দরে বিশৃঙ্খল অবস্থা তৈরি হয়, সাতটি দেশের প্রায় ৬০ হাজার যাত্রীর যুক্তরাষ্ট্র যাত্রা বাতিল হয় এবং আমেরিকার অনেকগুলো বিমানবন্দরে বিক্ষোভ দেখানো হয়।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম