সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : সদ্য প্রয়াত বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। শোকাবহ পরিবেশে সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে শেষকৃত্যের কাজ শুরু হয়। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলে শেষকৃত্য।

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার আনোয়ারপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে শেষকৃত্যে মুখাগ্নি করেন সুরঞ্জিত সেনের ছেলে সৌমেন সেনগুপ্ত।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, কয়েক বছর আগে বাড়ির উঠানে একটি চন্দন গাছ রোপণ করেছিলেন সুরঞ্জিত। সেই গাছের কাঠ দিয়ে তার দাহ করা হয়েছে।

এর আগে সিলেট থেকে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মরদেহ সিলেট থেকে সুনামগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়। বেলা দেড়টার দিকে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে তার মরদেহে শেষ শ্রদ্ধা জানান সুনামগঞ্জের মানুষ। শ্রদ্ধা নিবেদনের শুরুতে পুলিশের একটি চৌকস দল সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। পরে দিরাই নিয়ে যাওয়ার হয় তার মরদেহ।

ঢাকা থেকে সোমবার বেলা সাড়ে ১০টায় সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে বহনকারী হেলিকপ্টার। সেখান থেকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে সুরঞ্জিত সেনের মরদেহ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিয়ে আসা হয়। তার প্রতি সিলেটবাসীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় সুনামগঞ্জে।

প্রসঙ্গত, রোববার ভোর রাতে ঢাকার একটি হাসপাতালে  মারা যান সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম