সংবাদ শিরোনাম

 

বিনোদন ডেস্ক : অনেক জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে পাকিস্তানে নিষিদ্ধ করা হয়েছে শাহরুখ খানের ছবি রইস। এ ছবিতে মুসলিমদের যেভাবে তুলে ধরা হয়েছে তা ঠিক নয় বলে অভিযোগ করেছে পাকিস্তানের সেন্সর বোর্ড। তাই এ ছবি মুক্তির অনুমতি দেয়নি পাকিস্তান।

জানা যায়, পাকিস্তানের সেন্সর বোর্ড মনে করছে, রইসে ইসলাম ধর্মকে ছোট করা হয়েছে। মুসলিমদের অপরাধী, সন্ত্রাসবাদী হিসাবে তুলে ধরেছেন পরিচালক। তাই এই ছবি পাকিস্তানে মুক্তি পেলে তা দেশবাসীর মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে।

উরির হামলার ঘটনার পর বেশ কিছুদিন ধরেই ভারতের সঙ্গে প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানের সম্পর্ক খারপা যাচ্ছে। আর তার রেশ বারবার পড়ছে বলিউডে। অক্টোবরে করণ জোহরের ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবির মুক্তি নিয়ে কম ভোগান্তি হয়নি। কারণ, সে ছবিতে অভিনয় করেছিলেন পাক-অভিনেতা ফাওয়াদ খান। অনেক ঘটনার পর ছবিটি মুক্তি পায়। বাদ যায় ফাওয়াদ অভিনীত অধিকাংশ দৃশ্যই। একই বিতর্ক দানা বাঁধে ‘রইস’ নিয়েও। পাক নায়িকা মাহিরাকে ভারতে ছবির প্রচারে পর্যন্ত থাকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। সেই ‘রইস’ও মুক্তি পেয়েছে। কুড়িয়েছে প্রশংসাও।

কথা ছিল ১০ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে মুক্তি পাবে ‘রইস’। তা নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত ছিল রইস-টিম। সম্প্রতি ভিডিও কলের মাধ্যমে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মাহিরা জানান, রইসের মুক্তির জন্য পাকিস্তানের মানুষ অপেক্ষা করে রয়েছেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম