সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন নব গঠিত নির্বাচন কমিশনের (ইসি) শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি (বুধবার)। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পাঁচ সদস্যের কমিশনের শপথ পাঠ করাবেন।

মঙ্গলবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কাছে শপথ গ্রহণের চিঠি পাঠান। সন্ধ্যায় হাইকোর্ট ডিভিশনের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার সাব্বির ফয়েজ বাংলানিউজের আলাদত প্রতিবেদকে জানান, আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩টায় নুরুল হুদা কমিশনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে, ইসি সচিব  বলেন, নতুন কমিশনের শপথ গ্রহণের জন্য পাঠানো চিঠিতে কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান কমিশনের মেয়াদ উল্লেখ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে বলা হয়েছে- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ, নির্বাচন কমিশনার আবদুল মোবারক, আবু হাফিজ ও জাবেদ আলী মেয়াদ পূর্ণ করবেন ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি। সেক্ষেত্রে নব গঠিত কমিশনের চারজনের শপথ গ্রহণ ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে পরবর্তী যে কোনো দিন করা যাবে।

এদিকে বর্তমান কমিশনের নির্বাচন কমিশনার মো. শাহ নেওয়াজ মেয়াদ পূর্ণ করবেন আগামী ২০১৭ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। সেক্ষত্রে নব গঠিত কমিশনের একজন সদস্যকে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে পরবর্তী যে কোনো দিন শপথ পাঠ করানো যাবে।

ইসি সচিব বলেন, একাধিক দিনে শপথ গ্রহণ হলে নতুন গঠিত কমিশনের সদস্যরাও একাধিক দিনে দায়িত্ব নেবেন। এতে পরবর্তী কমিশন গঠনের ক্ষেত্রে এই বিষয়টি থেকে যাবে। আর এই সমস্যা কেবল মোকাবেলা করার একটি উপায় আছে। তা হলো যদি সবার শপথগ্রহণ একদিনেই হয়।

এই বিষয়টি আবার নির্ভর করবে প্রধান বিচারপতির ইচ্ছার ওপর। তিনি যদি মনে করেন, একাধিক দিনে তার সময় হবে না, তবেই কেবল একদিনে শপথ গ্রহণ হবে। আর তা করতে হবে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে পরবর্তী যে কোনো দিন।

নুরুল হুদাকে প্রধান করে সোমবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন গঠন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বাকি চার কমিশনার হিসেবে রয়েছেন, সাবেক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব তালুকদার, রাজশাহীর অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম কবিতা খানম, সাবেক সচিব মো. রফিকুল ইসলাম ও ব্রি জে (অব.) শাহাদৎ হোসেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম