সংবাদ শিরোনাম

 

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে চরপাড়া এলাকার ভরসা  ডায়াগনোস্টিক সেন্টার থেকে গোলাম রব্বানী নামে এক ভূঁয়া চিকিৎসককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কলকাতার বৌদ্ধ কমপ্লিমেন্টারী বারাসাত বিসিবি মেডিক্যাল কলেজে থেকে এমবিবিএস পাশ করার কথা জানিয়েছেন গোলাম রব্বানী। তার বাড়ি জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ থানায় এবং তার পিতা ফজলুল হক একজন পল্লী চিকিৎসক জানান তিনি।
চরপাড়া এলাকায় ভরসা নামে ডায়াগনোস্টিক সেন্টার খুলে চেম্বার দিয়ে প্রায় ২ বছর ধরে বিশেষজ্ঞ মেডিসিন  চিকিৎসকের পরিচয়ে গোলাম রব্বানী রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছিল। স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন বিষয়টি টের পেয়ে গতকাল পুলিশকে খবর দিলে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
ময়মনসিংহ ৩ নম্বর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হাবিবুর দৈনিক সবুজকে রহমান জানান, স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন রোগীদের সাথে প্রতারণার বিষয়টি জানালে গোলাম রব্বানীকে চেম্বার থেকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং পুলিশী হেফাজতে জিজ্ঞসাবাদ চলছে জানিয়েছেন তিনি।
পৌর কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন দৈনিক সবুজকে জানান, গোলাম রব্বানী মেডিসিন, গ্যাস্টিক, নাক, কান, গলা, চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞের পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছে। প্রতারণার বিষয়টি নজরে আসায় গোলাম রব্বানীকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।
গোলাম রব্বানী জানান, তিনি কলকাতার বিসিবি মেডিক্যাল কলেজে ২০০২ সালে এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি হয়ে ২০০৬ সালে পাশ করেছেন। প্র্যাকটিস করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের কোন অনুমতি নেই জানান তিনি। তবে হাইকোর্টের একটি রায় আছে প্র্যাকটিস করার বিষয়ে এ কথা জানিয়েছেন তিনি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম