সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : একঝাঁক তরুণ-তরুণী। সবার গায়ে একই রঙের টি-শার্ট। আর হাতে লাল গোলাপ। যেখানে যাকে পাচ্ছেন তাকেই দিচ্ছেন একটি করে লাল গোলাপ। কেউ গোলাপ দিচ্ছেন আবার কেউ ছবি তুলছেন।

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেয় এভারগ্রিন জুম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন।

ভালোবাসা দিবসে সবাইকে ফুল দেওয়া তরুণ-তরণীরা জানান, ভালোবাসাকে সমাজের সবার প্রতি নিবেদনের মাধ্যমে এটা বুঝাতে চান যে আসলে ভালোবাসা কখনো এককেন্দ্রিক হতে পারে না। ভালোবাসা সবার জন্য থাকাই শ্রেয়।

এভারগ্রিন জুম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এসটি শাহীন বলেন, ‘জন্মের পর থেকেই মানুষ ভালোবাসাকে কেন্দ্র করে বেড়ে ওঠে। কিছু ভালোবাসা রক্তের সম্পর্কের, কিছু ভালোবাসার সৃষ্টি প্রাত্যহিক জীবনে চলতে হয়, তেমনিভাবে কিছু ভালোবাসা আন্তরিকতারও হয়। তাই আসুন ১৪ ফেব্রুয়ারি সবাই মিলে সৃষ্টি করি ভালোবাসা দিবসের নতুন সংজ্ঞা; গতানুগতিক দৃষ্ঠিভঙ্গি দূর করে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি করি।’

জুম বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের কো-অর্ডিনেটর শিমা শিকদার বলেন, ‘একজন রিকশাচালক যিনি মাথার ঘাম পায়ে ফেলে আমাদের নিয়ে যাচ্ছেন গন্তব্যে, নিরাপত্তাকর্মী যে আমাদের সবার জানমাল রক্ষা করার জন্য নির্ঘুম রাত পার করছেন, সেই ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের হতে পারে সে একজন চায়ের দোকানদার, ফুল বিক্রেতা, ঝালমুড়ি বিক্রেতা, চটপটিওয়ালা, বাদামওয়ালা- যিনি ঈদ বা জাতীয় ছুটির দিনে জীবিকার তাগিদে আমাদের পাশে থাকেন। তাই ভালোবাসা কোনো  নির্দিষ্ট দিন বা ব্যক্তির জন্য নয়। সবার জন্য। আমরা ভালোবাসা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে চাই।’


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম