সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা : প্রস্তাবিত কুমিল্লা বিভাগের নাম ‘ময়নামতি’ করার বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না কুমিল্লাবাসী। পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের এ সংক্রান্ত বক্তব্যের পর থেকে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে কুমিল্লার বিভিন্নস্থানে। প্রতিবাদকারীদের দাবি, ময়নামতি নয়, কুমিল্লা নামেই বিভাগ চান তারা।

প্রস্তাবিত কুমিল্লা বিভাগের নাম ‘ময়নামতি’ হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফকালে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন। যেখানে তিনি বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন কুমিল্লা বিভাগের নামকরণ হবে ময়নামতি বিভাগ। এখন থেকে নতুন বিভাগ হলে জেলার নামে হবে না।’

পরিকল্পনা মন্ত্রীর এ ঘোষণার পর মঙ্গলবার বিকেলে এ নিয়ে ক্ষোভ এবং দুঃখ প্রকাশ করে কুমিল্লার সব শ্রেণি-পেশার মানুষ। শত বছরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা, সংস্কৃতি, কৃষি ও ক্রীড়ার পীঠস্থান ‘কুমিল্লা’ বিভাগ হলে তা হবে ‘কুমিল্লা’ নামেই, এমনই প্রত্যাশা কুমিল্লাবাসীর। তারা প্রশ্ন তুলেছেন, বিভাগ করার ক্ষেত্রে কেন এই নামকরণের পরিবর্তন? ময়নামতি নামকরণের যৌক্তিকতা কি? রাজশাহী, রংপুর, সিলেটসহ গঠন করা সবগুলো বিভাগই প্রাচীন জেলাগুলোর নামেই হয়েছে; তাহলে কুমিল্লা বিভাগের ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম কেন?

এ বিষয়ে কুমিল্লা সদর আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেছেন, ‘বাংলাদেশে যে সমস্ত বিভাগ ঘোষিত হয়েছে সেগুলো প্রাচীন জেলার নামেই ঘোষিত হয়েছে। আমরা দেখেছি রংপুর, রাজশাহী ও সিলেটও পূর্বাবস্থায় রয়েছে। প্রশ্ন হলো কুমিল্লার ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম কেন?। কুমিল্লার নামেই বিভাগ হতে হবে। এটা প্রধানমন্ত্রীর কাছে কুমিল্লার সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের গণদাবি।’

কুমিল্লার বেশ কয়েকজন রাজনীতিবিদের সাথে কথা বললে তারাও জানান, কুমিল্লা বাদ দিয়ে ‘ময়মনামতি’ নামকরণ করে বিভাগ ঘোষণা কুমিল্লাবাসী কখনো মেনে নেবে না। এ বিষয়ে আন্দোলনের জন্য ইতোমধ্যেই সংগঠিত হতে শুরু করেছে কুমিল্লাবাসী। প্রতিবাদের ঘোষণা দিয়েছে কুমিল্লার পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

এ বিষয়ে কুমিল্লা জেলা বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কুমিল্লা আইন কলেজের সাবেক জিএস এ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা বলেছেন, ‘প্রাচীন জেলা হিসাবে কুমিল্লা বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের কাছে অত্যন্ত পরিচিত নাম। দীর্ঘদিন ধরে বিভাগ বাস্তবায়নে কুমিল্লা নাম দিয়ে প্রচার-প্রচারণা ও আন্দোলনের মাধ্যমে দবি জানানো হয়েছে। নতুন করে ময়নামতি নামে বিভাগের নাম প্রস্তাবটি অত্যন্ত দুঃখজনক। তাই কুমিল্লা বিভাগের নামকরণে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।’

কুমিল্লার সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সমাজকর্মী দিলনাসি মহসিন বলেছেন, ‘প্রতীক্ষিত কুমিল্লা নাম বাদ দিয়ে কুমিল্লা বিভাগের অন্য কোনো নতুন নাম কুমিল্লাবাসী মেনে নিবে না।’

দেশের প্রাচীন সাপ্তাহিক ‘আমোদ’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক বাকিন রাব্বি বলেছেন, ‘কুমিল্লা বিভাগের নাম ভিন্ন নামে যদি হয় আমার জেলা হিসাবে অপমানিত বোধ করব।’

প্রসঙ্গত, কুমিল্লার মানুষ ১৯৮৪ সাল থেকে দীর্ঘ ৩২ বছর ধরে কুমিল্লাকে বিভাগ করার জন্য আন্দোলন করে আসছে। এরই ফলশ্রুতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভাগ বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে বিভাগের নাম ‘ময়নামনতি’ করা হবে এমন ঘোষণা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছে না কুমিল্লাবাসী।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম