সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : পৃথিবীর ৩৮টি দেশের বিভিন্ন কারাগারে ৯৬৪০ জন বাংলাদেশি নাগরিক বন্দি রয়েছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে টেবিলে উত্থাপিত মো. শামসুল হক টুকুর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, মিয়ানমারে ৯৮, সিঙ্গাপুরে ৮৭, নেপালে ১২, যুক্তরাষ্ট্রে ২৬, ভারতে ২৩৩৭, গ্রিসে ১২৩, জাপানে ৬৫, থাইল্যান্ডে ২৩, পাকিস্তানে ১৯, ফ্রান্সে ৪৬, যুক্তরাজ্যে ২১৮, কাতারে ১১২, সৌদি আরবে ৭০৩, জর্ডানে ৩৭, মিশরে ৫, দ. কোরিয়ায় ১৬, তুরস্কে ৬৮, জর্জিয়া ২৬, কিরগিজিস্তানে ১, ওমানে ১০৪৮, বাহরাইনে ৩৭০, লেবাননে ২, মালয়েশিয়াতে ২৪৬৯, চীনে ৫, হংকংয়ে ২৪, মঙ্গোলিয়ায় ১, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১০৯৮, ব্রুনাইয়ে ৫, ইতালিতে ৫১, ইরাকে ১২১, মরিশাসে ৭, মেক্সিকোতে ৯৭, আজারবাইজানে ৬, মরক্কোতে ২, দক্ষিণ আফ্রিকাতে ১১, ব্রাজিলে ১, অস্ট্রেলিয়াতে ৩৯ এবং কুয়েতে ২৬১ জনসহ মোট ৯৬৪০ জন বাংলাদেশি কারাগারে রয়েছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কোন দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কারাগারে আটক থাকা বাংলাদেশি নাগরিকের বিষয়ে অবহিত করলে বা অন্য কোন মাধ্যমে সংবাদ পেলে তা যাচাইপূর্বক বাংলাদেশ দূতাবাস সে দেশের কারাগারে আটক বাংলাদেশির বিষয়ে নিশ্চিত হয় এবং কনস্যুলার একসেসের মাধ্যমে তাদের সাথে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ সাক্ষাৎ করে। ক্ষেত্রবিশেষ সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের সাথে আলোচনার মাধ্যমে মধ্যস্থতা করে তাদের মুক্তি ও দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আটককৃত বাংলাদেশি নাগরিকরা যাতে সুষ্ঠু বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দ্রুত মুক্তি লাভ করতে পারে সেজন্য সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ দূতাবাস প্রয়োজনীয় আইনি সহায়তাসহ আনুষঙ্গিক সহযোগিতা প্রদান করে থাকে। দূতাবাস মুক্তি পাওয়া অবৈধ বাংলাদেশি নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য ট্রাভেল পারমিট প্রদান করে থাকে।’


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম