সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : দাবি মানলে ৩০০টাকা কেজি গরুর মাংস বিক্রি করা হতে পারে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম। তিনি বলেন, দাবি মানা না হলে এরপর ধর্মঘট হবে সারা দেশে। আর সব দাবি পুরোপুরি মানলে ও বৈধ পথে গরু আমদানি করা গেলে এই দাম নেমে আসবে ৩০০ টাকার নিচে।

শুক্রবার ডিআরইউ মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব এসব কথা বলেন।

এর আগে ৪ দফা দাবি আদায়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির নেতারা মাংস বিক্রি বন্ধ রাখেন।
বিভিন্ন দাবি আদায়ে ৬ দিন মাংসের দোকান বন্ধ রাখার সময় শেষ হচ্ছে আগামীকাল শনিবার।

রোববার থেকে ফের ঢাকা সিটি এলাকায় মাংস বিক্রি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের দাবি আদায়ে বাণিজ্যমন্ত্রী ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

বৈঠকে আলোচনা ফলপ্রসূ না হলে পরবর্তীতে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন বলেও হুশিয়ারি দেন রবিউল আলম।

ব্যবসায়ীদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- গাবতলী হাটে অতিরিক্ত ইজারা আদায় বন্ধ, হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাচারকারী চক্রকে চিহ্নিত করে শাস্তি দেয়া ও বিভিন্ন জেলা থেকে পশু আমদানির অনুমতি দেয়া, ট্যানারিতে চামড়া নেয়া ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তাকে জবাবাদিহিতার আওতায় আনা।

দাবি আদায়ে গত সোমবার থেকে মাংস বিক্রি বন্ধ রাখার পাশাপাশি মানববন্ধনসহ নানা সচেতনতা বৃদ্ধি কর্মসূচি পালন করেন ব্যবসায়ীরা।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম