সংবাদ শিরোনাম

 

স্পোর্টস ডেস্ক : জয়ের জন্য শেষ শেষ ২৩ বলে ৭৮ রান দরকার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কোয়েটার। অনেকটা অসম্ভবই ছিল। কিন্তু সেই অসম্ভবকে সম্ভব করলেন কেভিন পিটারসেন। অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে নিয়ে দুর্দান্ত গতিতে এগিয়ে যান ইংলিশ এই ক্রিকেটার।

এমনকি ৭ বল হাতে রেখেই কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কোয়েটা। লাহোর কান্দার্সের বিপক্ষে সরফরাজের দলের জয়টা ৫ উইকেটের। কোয়েটার জয়ের নায়ক পিটারসেন খেলেছেন ৮৮ রানের মহামূল্যবান এক ইনিংস। তার ৪২ বলের ইনিংসটি সমৃদ্ধ তিনটি চার ও ৮টি ছক্কায়। দলনেতা সরফরাজের ব্যাট থেকে আসে ৪৫ রান।

৮৮ রানের দুর্দান্ত এক খেলে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন পিটারসেন। ম্যাচ শেষে তিনি ফেলেন স্বস্তির নিঃশ্বাস। কেপি বলেন, ‘প্রথম দুই ওপেনারের বাজে ব্যাটিং পর এটা খারাপ না! এটা ছিল শ্বাসরুদ্ধকর একটি ম্যাচ। আমরা দর্শকদের বিনোদন দিতে সক্ষম হয়েছি। কৃতিত্ব দিতে হবে গ্রাউন্ড-স্টাফকে। কারণ এই উইকেট ব্যাটসম্যানদের জন্য খুবই ভালো; বোলারদের জন্য নয়।’

পঞ্চম উইকেটে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে নিয়ে ১০১ রানের জুটি গড়েন পিটারসেন। জয়ের ক্ষেত্রে ৪৫ রান করা  সরফরাজের ভূমিকাও কম নয়। তাই দলনেতার প্রশংসা করতে ভুল করেননি কেপি। বলেন, ‘সরফরাজ দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে। এই জয়টা একক কোনো খেলোয়াড়ের নয়। শুরুটা করেছিল রুশো; এরপর সরফরাজ ম্যাচটি টেনেছে। এই জয় সমবেত প্রচেষ্টার ফল।’


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম