সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ আসনে আওয়ামী লীগের সাংসদ সদস্য সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের খুনিদেরকে পুলিশ শনাক্ত করেছে বলে জানিয়েছেন বাহিনীটির প্রধান এ কে এম শহীদুল হক। এদেরকে দ্রুতই গ্রেপ্তার কওে গণমাধ্যমের সামনে হাজির করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার সকালে সাভারের আশুলিয়ায় শ্রীপুর শিল্প পুলিশ-১ এর বহুতল ব্যারাক ভবন ও অস্ত্রাগার ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন পুলিশ মহাপরিদর্শক। তবে কাদেরকে শনাক্ত করা হয়েছে সে বিষয়ে কিছুই বলেননি তিনি।

গত ৩১ ডিসেম্বর সুন্দরগঞ্জে নিজ বাড়িতে ঢুকে লিটনকে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।

শুরু থেকেই লিটন হত্যার জন্য জামায়াত-শিবিরকে দায়ী করে আসছে ক্ষমতাসীন দল এবং লিটনের পরিবার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও একাধিকবার একই কথা বলেছেন।

দেড় মাস ধরে চলা তদন্তের বিস্তারিত কিছুই  প্রকাশ করেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে আইজিপি বলেন, ‘সংসদ সদস্য লিটন হত্যাকা- তদন্তে যথেষ্ট অগ্রগতি হয়েছে। লিটনকে হত্যার ঘটনায় তিন মোটরসাইকেল আরোহীকেও ইতোমধ্যে শনাক্ত করা হয়েছে।’

অনুষ্ঠানে সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা নিয়েও আইজিপির কাছে জানতে চান গণমাধ্যমকর্মীরা। এই ঘটনায় বাবুলকে গ্রেপ্তার করা হবে কি না-এমন প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, ‘বাবলুকে গ্রেপ্তারের জন্য কনক্রিট এভিডেন্স দরকার। এখনও পর্যন্ত হত্যাকা-ের প্ল্যানারকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তাকে গ্রেপ্তার করা গেলেই এই হত্যাকা-ের রহস্য উন্মোচন হবে।’

গত বছরের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রামের জিইসি মোড়ে মিতুকে হত্যা করা হয়। এর কিছুদিন আগে বাবুল আক্তার ঢাকায় বদলি হয়ে এসেছিলেন। প্রাথমিকভাবে এই ঘটনাকে জঙ্গি হামলা হিসেবে সন্দেহ করা হলেও পরে তা প্রমাণ হয়নি। আর বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা আছে কি না এ নিয়েও প্রশ্ন উঠে পরে।

এরই মধ্যে বাবুল পুলিশে তার চাকরি হারিয়েছেন। বাহিনীটি বলছে, বাবুল নিজেই পদত্যাগ করেছেন। তবে বাবুল জানিয়েছেন, এই সিদ্ধান্ত নিতে তাকে চাপ দেয়া হয়েছিল।

এর আগে পুলিশের মহাপরিদর্শক শিল্প পুলিশের নারী কনস্টেবলদের প্রথম ওরিয়েন্টশন কোর্স সমাপনীর কুচকাওয়াজ ও সালাম পরিদর্শন করেন আইজিপি।

অনুষ্ঠানে শিল্প পুলিশের ডিআইজি আব্দুস সালাম, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান, শিল্প পুলিশ-১ এর পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমানসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম