সংবাদ শিরোনাম

 

স্পোর্টস ডেস্ক : টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন আগেই। টি-টোয়েন্টিতেও অবসর নিচ্ছেন; এই গুঞ্জন উঠেছিল। তবে এবার আর গুঞ্জন নয়; তা রূপ নিয়েছে বাস্তবে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকেও বিদায় বলে দিলেন শহিদ খান আফ্রিদি। আর তাতে ২১ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট জীবনে ইতি টানলেন পাকিস্তানের বুমবুম খ্যাত এই ক্রিকেটার।

২০১০ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেন আফ্রিদি। পাঁচ বছরের ব্যবধানে অর্থাৎ ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পর একদিনের ক্রিকেট থেকেও নিজেকে সরিয়ে নেন তিনি। গত বছর পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক ছিলেন।

কিন্তু ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভালো করতে পারেনি আফ্রিদির নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান। সঙ্গে যোগ হয়েছিল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে হার। পাকিস্তান আসর থেকে ছিটকে যায় দ্রুতই। পরবর্তীতে টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়ান এই অলরাউন্ডার। এবার তো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেই নিজেকে সরিয়ে নিলেন।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের হয়ে ৯৮টি টি-টোয়েন্টি খেলে ১৪০৫ রান করেছেন আফ্রিদি; বল হাতে নিয়েছেন ৯৭ উইকেট। ৩৯৮টি ওয়ানডে খেলে নামের পাশে যোগ করেছেন ৮০৬৪ রান। সর্বোচ্চ রানের ইনিংস ১২৪। একদিনের ক্রিকেটে তার  উইকেট সংখ্যা ৩৯৫টি। ২৭টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন আফ্রিদি। রান করেছেন ১১৭৬। সর্বোচ্চ স্কোর ১৫৬। উইকেট দখলে নিয়েছেন ৪৮টি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম