সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর : এসএসসি পরীক্ষা শেষে বাবার চালিত ভ্যানে বাড়ি ফেরার পথে মহাসড়কে প্রাণ গেল মেধাবী ছাত্রী মনিরা খাতুনের। একটি মাহিন্দ্রের চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা যায় এই পরীক্ষার্থী।

সোমবার রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে পীরগঞ্জের জামতলা নামকস্থানে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, পীরগঞ্জ ইউনিয়নের রামপুরা গ্রামের মাহবুবার রহমানের মেয়ে মনিরা এবারে পীরগঞ্জ আদর্শ বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল। দুর্ঘটনার কবল থেকে বাঁচতে প্রতিদিন বাবার ভ্যানে চড়ে সে বাড়ি থেকে ওই মহাসড়কের প্রায় দুই কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিয়ে বিদ্যালয়ে আসতো।

সোমবার ২৫ মিনিটের তথ্য-প্রযুক্তি (আইসিটি) পরীক্ষা শেষে বাবার ভ্যানে করে বাড়ি ফিরছিল মনিরা। জামতলা পৌঁছলে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি বহনকারী একটি মাহিন্দ্র পাশ কাটানোর সময় ভ্যানটিকে ধাক্কা দিলে চাকায় পিষ্ট হয়ে মনিরা ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায়। দুর্ঘটনা থেকে মেয়েকে বাঁচাতে না পারায় বাকরুদ্ধ হয়ে গেছেন বাবা।

আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আ স ম রফিকুল ইসলাম জানান, মেয়েটি মেধাবী হওয়ায় প্রতিষ্ঠান থেকে সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত ছিল। স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারী ও ছাত্রীরা কোনোভাবেই মনিরার অকাল মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না।

পীরগঞ্জ থানার ওসি রেজাউল করিম জানান, ঘাতক মাহিন্দ্রটি থানা হেফাজতে আনা হয়েছে। চালক পলাতক। এখনো মালিকের নাম-ঠিকানা পাওয়া যায়নি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম