সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। অন্যথায় তার জামিন বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আদালত।

বুধবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালত এ আদেশ দেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন মেজবা এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, যাত্রাবাড়ীতে বাসে পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল আজ। কিন্তু এদিন শারীরিক অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হতে পারেননি। এজন্য তার পক্ষে সময়ের আবেদন করেন সানাউল্লাহ মিয়া।

আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে পরবর্তী শুনানির তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ধার্য করে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছেন । ওই দিন খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হলে তার জামিন বাতিল হবে বলে জানিয়েছেন আদালত।

উল্লেখ্য, একই আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও নাশকতার ৯ মামলায় ২৭ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার হাজির হওয়ার জন্য দিন ধার্য রয়েছে। ওই ১০ মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে হাজির না হলে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হবে বলে গত ১ ফেব্রুয়ারি আদালত নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাত ৯টায় যাত্রাবাড়ীর ডেমরা রোডের মাতুয়াইল কাউন্সিলর অফিসের সামনে গ্লোরী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা হামলায় দগ্ধ হন কমপক্ষে ৩১ জন। যাদের মধ্যে ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসারত অবস্থায় নূর আলম নামে একজন মারা যায়।

ঘটনার পর পরিককল্পনাকারী হিসেবে বিএনপির কেন্দ্রীয় ১৮ জন নেতাসহ যাত্রাবাড়ীর ছাত্রদল শ্রমিকদলসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ৫০ জন নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখ করে মামলাটি করা হয়েছিল। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাম এজাহারে আসামির তালিকায় উল্লেখ করা না হলেও এজাহারের বক্তব্যের মধ্যে হুকুমদাতা হিসেবে তার নাম উল্লেখ করা হয়েছিল।

মামলাটিতে ২০১৫ সালে ৩ এপ্রিল খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন ডিবি পুলিশের এসআই বশির আহমেদ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম