সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম : একুশের প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের মূল বেদীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদ‍া জিয়ার উঠে পড়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যেখানে রাষ্ট্রপতি ফুল দিয়েছেন, আমি দিলাম, স্পিকার দিলেন, যেখানে সবাই ফুল দিল, খালেদা জিয়া সেখানে সদলবলে উঠে গেলেন। উনি না হয় মধ্যরাতে বেতালা হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু উনার সাঙ্গপাঙ্গরাও কি মধ্যরাতে বেতালা হয়ে শহীদ মিনারে গিয়েছিলেন?

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে আয়োজিত এক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা মানুষ পুড়িয়ে খুন করতে পারে, তাদের কাছে কী সংস্কৃতির আশা করবেন? এরা আমাদের সংস্কৃতি, ভাষা ও সাহিত্যের মর্যাদা বুঝবে কীভাবে। তাছাড়া এদের মনে পেয়ারে পাকিস্তান। এজন্য শহীদ মিনারের মূল বেদীতে উঠে পড়েছিল। এরা জানে না কোথায় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে হয়।

জাতির ভাষা সংগ্রামের ইতিহাস জানতে নতুন প্রজন্মকে তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের ইতিহাস ও অতীত জানতে হবে। যে ছেলে ইতিহাস-অতীত জানতে পারে না, সে সত্যিকার অর্থে বাঙালি হতে পারে না।

বক্তৃতার শুরুতে মাতৃভাষা বাংলার রাষ্ট্রভাষার স্বীকৃতি আদায়ের দীর্ঘ সংগ্রামের ইতিহাস তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি এই অধিকার আদায়ে শহীদ হওয়া জাতির সূর্যসন্তানদের গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন ভাষা সংগ্রাম থেকে শুরু করে স্বাধীনতা আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকেও।

ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীনতা সংগ্রাম, বাঙালির অধিকার আদায়ের প্রতিটি সংগ্রামে আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব দিয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাঙালি জাতির যে অর্জন, তার প্রত্যেকটির পেছনে আওয়ামী লীগের অবদান রয়েছে।

বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যার পর স্বাধীন বাংলাদেশ ধ্বংসের যেমন চেষ্টা হয়েছে, তেমনি নানাসময়ে বাংলা ভাষাকেও বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম