সংবাদ শিরোনাম

 

বিনোদন ডেস্ক : এক সময় বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রী ছিলেন মনীষা কৈরালা। তারপর দুরারোগ্য ক্যান্সারে সিলভার স্ক্রিন থেকে অনেকটা দূরে চলে যেতে বাধ্য হন নায়িকা। দীর্ঘ চিকিৎসার পর এখন তিনি ক্যান্সারমুক্ত। ওভারিয়ান ক্যান্সার সারিয়ে মাঝে আরও পাঁচটা বছর কাটিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী। আর এ বার মা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মনীষা। নেপালি ব্যবসায়ী সম্রাট দহালের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর একাকিত্ব থেকে মুক্তি পেতে মা হতে চান তিনি। সব কিছু ঠিক থাকলে, চলতি বছর ডিসেম্বরেই একটি কন্যা সন্তান দত্তক নিতে পারেন তিনি।

মনীষার ভাষ্য, ‘‘আমি কন্যা সন্তান দত্তক নিতে চাই। খুব এক্সাইটেড লাগছে। আর অপেক্ষা করতে পারছি না। সব কিছু ঠিক থাকলে এ বছর ডিসেম্বরের মধ্যেই দত্তক নিতে পারব। তারপর ওকে ঘিরেই আমার জীবনের সব পরিকল্পনা করব।’’

সম্প্রতি রাজু হিরানি পরিচালিত সঞ্জয় দত্তের বায়োপিকে নার্গিসের চরিত্রে অভিনয় করছেন মনীষা। কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হবে এই ছবির শুটিং। বলিউডে দত্তক নেওয়ার ইতিহাস নতুন নয়। মনীষার আগে দুই মেয়েকে দত্তক নিয়ে সিঙ্গল মাদার হিসেবে নজির সৃষ্টি করেছেন সুস্মিতা সেন। রবিনা টন্ডনও এক মেয়েকে দত্তক নিয়েছেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম