সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন,সরকার দেশের মানুষের কল্যাণের পাশাপাশি আধুনিক এবং দক্ষ সেনাবাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্য কাজ করছে।

সেনাবাহিনীর আধুনিকায়নে ‘ফোর্সেস গোল ২০৩০’ পরিকল্পনা বহুদূর এগিয়েছে এবং তা বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী হবে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও শক্তিশালী বাহিনী।

বৃহস্পতিবার (ফেব্রুয়ারি ২৩) দুপুরে মিরপুর সেনানিবাসে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে (এনডিসি) ক্যাপস্টোন কোর্স ২০১৭/১’র সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

দুই সপ্তাহের এ কোর্সে ৪ জন সংসদ সদস্য, ৪ জন সচিব,মেজর জেনারেল ও সমমানের ৩ জন সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তা, শিক্ষাবিদ, প্রকৌশলী, সিনিয়র পুলিশ অফিসারসহ ২৮ জন ফেলো অংশ নেন।

এছাড়া ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিট নিয়ে কাজ করা দু’জন সিনিয়র সাংবাদিক,৭ জন ব্যবসায়ী ও সিআইপি, একজন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্রতিনিধি ও দু’জন কূটনৈতিকও ওই কোর্সে অংশ নেন।

কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী এনডিসিতে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী ( বীর বিক্রম)।

এনডিসির কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী বলেন,কোর্সটি অষ্টম বর্ষে পা দিয়েছে। যা নিয়ে জাতীয় নীতি নির্ধারকসহ বিভিন্ন মহলে বিপুল আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে।

পাশাপাশি এই কোর্স সেনাবাহিনীর সাথে বেসামরিক জনগণের সম্পর্কোন্নয়নে অসাধারণ ভূমিকা রাখছে।

কমান্ড্যান্ট বলেন, আমাদের মহান নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে লাখো মুক্তিযোদ্ধাদের প্রাণ বিসর্জনের মাধ্যমে আমরা দেশ পেয়েছি।

জ্ঞান,পারস্পরিক সৌহার্দ্যের মাধ্যমে একটি সমন্বিত ও সহযোগিতামূলক কাঠামো গঠনের ভিত্তিতে জাতীয় নিরাপত্তা ও উন্নয়নের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি।

সামরিক ও বেসামরিক সম্পর্কোন্নয়নের মাধ্যমে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলকে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান তিনি।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম