সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে দাবি করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

শুক্রবার সিলেট সার্কিট হাউজে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘গ্যাসের দাম কম ছিল, তাই বাড়ানো হয়েছে।’

এদিকে কানাডার আদালতের রায়ে বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন বলার বিষয়টি সরকারের চক্রান্ত বিএনপির এমন দাবির জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি যেখানেই ব্যর্থ হয়, সেখানেই ষড়যন্ত্র দেখে।’

শুক্রবার সকালে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন অনুষ্ঠান শেষে দেশের স্বার্থে বিএনপিকে গঠনমূলক হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

গত বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে (বিইআরসি) সংবাদ সম্মেলনে ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের দাম বাড়ানোর তথ্য জানানো হয়।

গ্যাসের এ বাড়তি দাম দুই ধাপে কার্যকর হবে। প্রথম ধাপ ১ মার্চ থেকে আর দ্বিতীয় ধাপ ১ জুন থেকে। সে অনুযায়ী, আগামী ১ মার্চ থেকে আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ৮০০ এবং এক চুলার জন্য ৭৫০ টাকা করা হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে ১ জুন থেকে আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ৯৫০ এবং এক চুলার জন্য ৯০০ টাকা করা হয়েছে।

বাণিজ্যিক ইউনিট মার্চে ১৪.২০ টাকা এবং জুনে ১৭.০৪ টাকা হবে। আর সিএনজির দাম মার্চে প্রতি ঘনমিটার ৩৮ টাকা ও জুনে ৪০ টাকা করা হয়েছে।

ক্যাপটিক পাওয়ার ১ মার্চ থেকে প্রতি ঘনমিটার ৮.৯৮ এবং ১ জুন থেকে ৯.৬২ টাকা করা হয়েছে। বিদ্যুৎ খাতের গ্যাসের দাম মার্চ থেকে ২.৯৯ টাকা ও জুন থেকে ৩.১৬ টাকা করা হয়েছে।

চা বাগানে গ্যাসের দাম ১ মার্চ থেকে ৬.৯৩ টাকা আর ১ জুন থেকে ৭.৪২ টাকা করা হয়েছে। সার কারখানায় মার্চে ২.৬৪ টাকা এবং জুনে ২.৭১ টাকা করা হয়েছে।

এছাড়া গৃহস্থালীর কাজে মিটারে গ্যাসের দাম প্রতি ঘনমিটার ১ মার্চ থেকে ৯.১০ টাকা এবং ১ জুন থেকে ১১.২০ করা হয়েছে।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম