সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনে অনিয়মের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ‘পর্যবেক্ষণ ও পর্যালোচনা কমিটি’ গঠন করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির আগামী বৈঠকে এই কমিটি এ বিষয়ে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করবে। এতে যদি হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনে অনিয়মের বিষয়টি প্রমাণিত হয় তাহলে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জাতীয় সংসদে মিডিয়া সেন্টারে মঙ্গলবার বিকেলে ধর্ম মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির ২৫তম বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সংসদীয় কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুনকে আহ্বায়ক ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল জলিলকে সদস্য সচিব করে অনিয়মের বিষয়টি তদন্ত করতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। হজ এজেন্সিজ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)-এর লিখিত অভিযোগ ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রাক-নিবন্ধনে অনিয়ম নিয়ে প্রকাশিত খবরের সূত্র ধরে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বলেন, হজের প্রাক নিবন্ধনের সঙ্গে সিন্ডিকেট আছে কীনা তা তদন্ত করে দেখা হবে। যদি দেখা যায় কারো হস্তক্ষেপে সিন্ডিকেট হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলে, সারা বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশেও ই হজ ব্যবস্থানায় আওতায় আনা হয়েছে। এবার ১ লাখ ৬৮ হাজার প্রাক নিবন্ধিত হয়েছে। এর মধ্যে ১ লাখ ২৭ হাজার হজে যেতে পারবেন। কিন্তু ইতোমধ্যে আরো ৫০ হাজারের বেশি নিবন্ধিত রয়েছেন তাদের ব্যাপারে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় বিভিন্ন ধরনের নিউজ হচ্ছে।

সংসদীয় কমিটির সদস্য আসলামুল হক বলেন, অটোমেশনে নিবন্ধন হলেও হাব বলতে চাচ্ছে যারা আগে টাকা জমা দিবে তারা আগে হজে যাওয়ার সুযোগ পাবে। আর যারা টাকা পরে জমা দিবেন তারা পরে নিবন্ধনের সুযোগ পাবেন। সরকারের নিয়ম অনুযায়ী এ-ধরনের কোনো সুযোগ নেই। আর যারা এখন পর্যন্ত নিবন্ধিত হতে পারেননি তারা ভাবছেন এরমধ্যে দুর্নীতি হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে সংসদীয় কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। আর অটোমেশনের মাধ্যমে নিবন্ধটি সঠিক হচ্ছে কিনা তা ‍উপস্থাপনের জন্য বলা হয়েছে। আগামী বৈঠকে এ ব্যাপারে জানানো হবে। আর এটি উপস্থাপন করলে ফাইন্ডআউট করতে পারব নিবন্ধন সঠিক হচ্ছে কিনা। ধর্মীয় অনুভূতির কারণেই বিষয়টি আমরা স্বচ্ছতা ও জবাব দিহিতার আওতায় আনব-যোগ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, হজযাত্রীদের প্রাক নিবন্ধন নিয়ে এবারও সিন্ডিকেটের অভিযোগ উঠেছে। টাকার বিনিময়ে কয়েকটি বড় হজ এজেন্সিকে সুযোগ দেওয়ায় ছোট হজ এজেন্সিগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই সিন্ডিকেটের সঙ্গে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কিছু অসাধু কর্মকর্তা ও হজের আইটি ফার্ম ‘বিজনেস অটোমেশন’ জড়িত রয়েছে বলে মন্ত্রণালয়ে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছে হজযাত্রী কল্যাণ পরিষদ ও হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)। হজযাত্রীদের প্রাক নিবন্ধনে অনিয়ম নিয়ে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ‘হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধনে অনিয়মের অভিযোগ’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমে প্রকাশিত হয়। পরবর্তীতে একই ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে।

বৈঠকে কমিটির সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা, আবু রেজা মুহম্মদ নেজাম উদ্দিন, মোহাম্মদ আমির হোসেন এবং ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বিশেষ আমন্ত্রণে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবদুল জলিল, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম