সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে সৃষ্ট অচলাবস্থায় দুঃখ প্রকাশ করে পরিবহন শ্রমিকদের কাজে ফেরার আহ্বান জানিয়েছেন নৌমন্ত্রী শাজাহান খান। তিনি বলেছেন, আমাদের বিশ্বাস, এ অনুরোধের প্রেক্ষিতে সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হবে। আজ বুধবার দুপুরে মতিঝিলের পরিবহন ভবনের ষষ্ঠ তলায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির কার্যালয়ে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে এ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান যিনি নিজেই বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি।   তাই আমি সারাদেশের সব পরিবহন শ্রমিকদের যান চলাচলের অনুরোধ জানাচ্ছি। মঙ্গলবার সারাদেশে শুরু হওয়া এ পরিবহন অচলাবস্থাকে ধর্মঘট হিসেবেও মানতে রাজি হননি মন্ত্রীসহ পরিবহন নেতারা। তারা এটিকে মালিক শ্রমিকদের কর্মবিরতি হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে শাজাহান খান বলেন, গণপরিবহন বন্ধ থাকায় জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। এতে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় আন্তরিকভাবে দুঃখিত। এই অচলাবস্থাকে কেন্দ্র করে কিছু মহল উস্কানি দিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার চেষ্টা করছে। নৌমন্ত্রী আরও বলেন, সম্প্রতি একটি মামলায় চালকের যাবজ্জীবন সাজা হওয়া এবং আরেকটি মামলায় হাইকোর্টে বিশ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়ার ঘটনায় শ্রমিকরা অনিরাপদ বোধ করছে। আমাদের আশঙ্কা, এধরনের মামলা আমাদের বিরুদ্ধে যাবে। এ বিষয়ে আজ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। তারা সমস্যার বাস্তবতা উপলব্ধি করেছেন এবং আমাদের আশ্বস্ত করেছেন আইনগতভাবে সমস্যা সমাধানের। আইনানুগ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

দুপুরের ওই বৈঠকে ছিলেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের সঙ্গে আরও ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙা, যিনি নিজেও শ্রমিক নেতা হিসেবে পরিচিত। এছাড়াও বৈঠকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতাদের মধ্যে সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সংগঠনের খুলনা অঞ্চলের নেতা আব্দুর রহিম বক্স দুদু, শ্রমিক নেতা কাজী মোতাহার হোসেনসহ অন্য নেতারা, মালিক সংগঠনের পক্ষে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েতউল্লাহ, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের ফারুক  তালুকদার সোহেলসহ অন্যান্য নেতা অংশ নিয়েছেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ১০টার দিকে সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের দফতরে পরিবহন ধর্মঘট ইস্যুতে আরেকটি রুদ্ধদ্বার এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, নৌমন্ত্রী শাজাহান খান, শ্রম প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙা, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং পরিবহন মালিক এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েতুল্লাহ খান। এছাড়াও আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গেও তাদের বৈঠক হয়।

প্রসঙ্গত, মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীর নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জামির হোসেন নামের এক পরিবহন শ্রমিককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত। এছাড়া সাভারের এক দুর্ঘটনার মামলায় মীর হোসেন মীরু নামে আরেক চালককে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন সিএমএম আদালত। এ কারণে  প্রথমে খুলনা বিভাগে বাস ধর্মঘট শুরু হয়। আর মঙ্গলবার থেকে সারাদেশ অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘটের ডাক দেন।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম