সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত না হলে ট্রেড ইউনিয়নের লাইসেন্স দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।
আসন্ন নারী দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) রাজধানীর ডেইলি স্টার ভবনের আজিমুর রহমান কনফারেন্স হলে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, ট্রেড ইউনিয়ন করার ক্ষেত্রে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে হবে। নয় তো ভবিষ্যতে লাইসেন্স দেওয়া হবে না। লিঙ্গ বৈষম্য দূর করতে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।
নারী ও প্রগতীশীল বিদ্বেষী দল- যাতে ২০১৯ সালে ক্ষমতায় আসতে না পারে সে আহ্বান জানিয়ে ইনু বলেন, ‘তেঁতুল হুজুর বা তাদের সমর্থিত কোনো দল ক্ষমতায় আসলে নারী শ্রমিকদের কি হবে তা ভাবতে হবে। যে দেশে জঙ্গিবাদ নেই, তারপরেও জঙ্গিবাদ নিয়ে কথা হচ্ছে। যেহেতু ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন করতে হবে। তাই জঙ্গিবাদ দাপটে চললে টেকসই উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে।’
নারী শ্রমিক কণ্ঠের আহ্বায়ক শ্রমিকনেত্রী শিরিন আক্তার বলেন, নারীদের অধিকার রক্ষার্থে আইন আছে। কিন্তু আইনের বাস্তবায়ন সেভাবে দেখি না আমরা। নারীদের জন্য প্রণীত আইনগুলো বাস্তবায়নে শিথিলতা, অবহেলা দেখা যায়। আইনের বাস্তবায়ন না হলে নারী-পুরুষ সমতা সম্ভব না। সমতার সঙ্গে ক্ষমতার লড়াই করতে হচ্ছে। তবে নারীরা ক্রমশই সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। সামনে এগিয়ে যেতে হলে নারী ও পুরুষকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।
জাতীয় প্রেসক্লাবের প্রথম নারী সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, সবক্ষেত্রে এক তৃতীয়াংশ নারী প্রতিনিধিত্বের জন্য রাজনৈতিক অঙ্গীকার জরুরি। অন্যদিকে, যৌন হয়রানি প্রতিরোধে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের একটি নীতিমালা থাকা উচিত। পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব পরিবর্তন না হলে সামনে এগিয়ে যাওয়া কঠিন। সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে আসতে হবে।
বাচ্চা প্রতিপালনের দায়িত্ব কেবল মায়ের ওপর না দিয়ে বাবার ওপরও দেওয়া উচিত বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক তানিয়া হক।
তিনি বলেন, সন্তান লালন-পালন কেবল মায়ের দায়িত্ব নয় বাবারও। এক্ষেত্রে শুধু মাতৃত্বকালীন ছুটি না হলে প্যারেনাটাল ছুটি হওয়া উচিত। যাতে বাবা-মা বাচ্চা লালন-পালনে উভয়কে সহায়তা করতে পারে।
এ সময় অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন- শ্রম অধিদফতরের পরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল, শ্রমিক নেত্রী নাজমা আক্তার, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজের (বিলস) যুগ্মমহাসচিব জাফরুল হাসান, শ্রমিক নেতা সুলতান মাহমুদ।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম