সংবাদ শিরোনাম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের প্রকাশিত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বাংলাদেশ নিয়ে যে পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর প্রকাশ করেছে তা নীতিগতভাবে আমরা সমর্থন করি না।

সোমবার (৬ দুপুরে) দুপুরে তথ্য মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের ওয়েবসাইটে সম্প্রতি প্রকাশিত ওই পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়া দিতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

‘বার্ষিক মানবাধিকার প্রতিবেদন ২০১৬’ শীর্ষক ওই রিপোর্টে বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে পর্যবেক্ষণে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দফতরের পক্ষ থেকে বলা হয়, বাংলাদেশে জঙ্গি তৎপরতা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে জঙ্গিবিরোধী সাঁড়াশি অভিযান চালানো হচ্ছে। কিন্তু এ ধরনের সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের নামে নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার খর্ব করা হচ্ছে। প্রতিবেদনটিতে মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে আরও নানা অভিযোগ তোলা হয়।

জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে যে রিপোর্ট দিয়েছে তা ভুল চশমা পরে এবং ঝাপসা চোখে পর্যবেক্ষণ করে দেওয়া। আমরা এই রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করছি। নীতিগতভাবেই আমরা যুক্তরাষ্ট্রের এই ঢালাও মন্তব্য সমর্থন করি না।

তথ্যমন্ত্রী সাফ বলে দেন, এই রিপোর্ট যথাযথ তথ্য নির্ভর নয়। বাংলাদেশ সংবিধান ও আইনে পরিচালিত হয়। এখানে আইন-বহির্ভূত কাজ করার ক্ষমতা সরকার ও কোনো সংস্থার নেই।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম