সংবাদ শিরোনাম

 

স্পোর্টস ডেস্ক : গল টেস্টের মধ্যদিয়ে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিশন শুরু করতে যাচ্ছে সফরকারী বাংলাদেশ। দুই ম্যাচ টেস্টের প্রথমটির জন্য ইতোমধ্যে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি সম্পন্ন করে নিয়েছে মুশফিক বাহিনী। মঙ্গলবার (০৭ মার্চ) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০.৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

এর আগে সোমবার (০৬ মার্চ) সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে টাইগারদের দলপতি মুশফিকুর রহিম জানালেন নিজেদের সেরা প্রস্তুতি আর লক্ষ্যের কথা।

বাংলাদেশ এবার শ্রীলঙ্কায় অনেক আশা নিয়েই খেলবে। পুরো দলের মধ্যেও সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভালো কিছু করার প্রত্যাশা। সংবাদ সম্মেলনে মুশফিক জানান, ‘আমাদের অনেক সুযোগ রয়েছে টেস্টে ভালো কিছু করার। গত কয়েকদিন ধরেই আমরা কঠোর অনুশীলন করেছি। আশা করি এই ম্যাচের মধ্যদিয়ে আমাদের ক্রিকেটাররা নিজেদের ফর্ম ফিরে পাবে। ইনশাআল্লাহ ভালো কিছুই হবে বলে মনে হচ্ছে।’

আগামীকাল ৯৯তম টেস্ট খেলতে নামবে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সাদা পোশাকের লড়াইয়ে বাংলাদেশের অবস্থা খুব একটা উজ্জ্বল নয়। দু’দলের এখন পর্যন্ত ১৬ বারের দেখায় ১৪ বারই পরাজয়ের স্বাদ নিতে হয়েছে টাইগারদের। বাকি দুটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। অতীতের পরিসংখ্যানে পড়ে থাকতে চান না মুশফিক। ভালো দিকটি সঙ্গী করে আত্মবিশ্বাসী মুশফিক যোগ করেন, ‘বাংলাদেশ দল এবার ভিন্ন একটি দলের বিপক্ষে খেলবে। আগের পরিসংখ্যান যাই থাকুক, এবার আমরা আত্মবিশ্বাসী। অতীত ভালো হলে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়। ব্যাটসম্যানরা ভালো টাচে আছে। এটা আমাদের মেজর সাপোর্ট দেবে।’

‘শ্রীলঙ্কার এবারের দলটি টোটালি আলাদা দল। তাদের লোকাল ক্রিকেটাররা তরুণ। তারাও ভালো কিছু দেবার চেষ্টা করবে। আমরাও সেরাটা দেবার চেষ্টা করবো। তাই বলাই যায়, ম্যাচটি বেশ ভালো হবে।’ জানান মুশফিক।

উইকেট আর স্কোয়াড নিয়ে বলতে গিয়ে মুশফিক জানান, ‘এখানের উইকেট ভালো হবে বলে মনে করছি। আজও আমরা অনুশীলন করবো। আর উইকেট বিবেচনা করেই স্কোয়াড সাজানো হবে। যদি পেসার দরকার তাহলে বেশি পেসারকে সুযোগ দেওয়া হবে। আর যদি মনে হয় উইকেট স্পিনবান্ধব তবে স্পিনারদের দিকে তাকিয়ে থাকবো। উইকেট থেকে যারা বেশি সুবিধা পাবে, স্কোয়াডে তারাই থাকবে। তবে, প্রত্যেকেই নিজেদের সেরাটা দিতে প্রস্তুত।’

দুই দলের মিলিত টেস্ট খেলার সংখ্যা দিয়ে পরিমাপ করা হলে শ্রীলঙ্কার বর্তমান দলের থেকে বাংলাদেশ অনেক অভিজ্ঞ। এবার নেই কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, মুত্তিয়া মুরালিধরন, চামিন্দা ভাস, দিলশানদের মতো তারকারা। আর গল বাংলাদেশের জন্য পয়া ভেন্যু হিসেবেই পরিচিত। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি এসেছে গত সফরে। গলে সেবার মুশফিক, আশরাফুলের অসাধারণ ব্যাটিং নৈপুণ্যে ৬৩৮ রান করে বাংলাদেশ, যা টেস্ট ইতিহাসের পাশাপাশি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও সাকিব-মুশফিকদের দলীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।


মতামত জানান :

 
 
আরও পড়ুন
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম